সোহরাওয়ার্দী কলেজে ভর্তি ফি-এর নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ

প্রকাশিত: ৭:৪১ অপরাহ্ণ, জুলাই ৮, ২০২৪

সোহরাওয়ার্দী কলেজে ভর্তি ফি-এর নামে অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ

সোহরাওয়ার্দী কলেজ প্রতিনিধি : রাজধানীর সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পর্যায়ে বিভিন্ন বর্ষে অধ্যায়নরত শিক্ষার্থীদের ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে বিভিন্ন খ্যাত উল্লেখপূর্বক অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে।

 

সাম্প্রতিক সময়ে সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে মাস্টার্স শেষ পর্বের ভর্তি ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেন। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে শুধুমাত্র অত্র কলেজ হতে ২০২২ সনের অনার্স ৪র্থ বর্ষ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ (CGPA প্রাপ্ত) শিক্ষার্থীদের ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষে এম.এ/এম.এস.এস/এম.বি.এ/এম.এসসি শেষ পর্ব নিয়মিত কোর্সে ভর্তি কার্যক্রম আগামী ১২/০৫/২০২৪ হতে ১০/০৬/২০২৪ তারিখের মধ্যে মোবাইল ব্যাংকিং এর মাধ্যামে অনলাইনে সম্পন্ন করে। শিক্ষার্থীগণ উল্লেখিত তারিখের মধ্যে ভর্তি ফি জমা দিয়ে অনলাইনের মাধ্যমে ভর্তি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার।’

 

বিজ্ঞপ্তিতে আরো উল্লেখ করা হয়, ‘এম.এ (বাংলা, ইংরেজী, ইসলাম শিক্ষা, ইসলামের ইতিহাস, দর্শন), এম.এস.এস (সমাজকর্ম, রাষ্ট্রবিজ্ঞান, অর্থনীতি) ও এম.বিএ (হিসাববিজ্ঞান, ব্যবস্থাপনা) ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষ মাস্টার্স শেষ পর্বে ভর্তি ফি বাবদ ৪২৪০ টাকা। এবং এম.এস.সি (রসায়ন, উদ্ভিদবিজ্ঞান, প্রাণিবিদ্য, মৃত্তিকা বিজ্ঞান, ভূগোল ও পরিবেশ, গণিত) ৪৪৯০ টাকা।’

 

এছাড়াও গত ১৪ই মে সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে অনার্স চতুর্থ বর্ষের ভর্তির এক বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেন। সেখানে বলা হয়েছে, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ, ঢাকা হতে ২০২২ সনের অনার্স ৩য় বর্ষ (২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ (Promoted) ছাত্র-ছাত্রীদের আগামী ১৫.০৫.২০২৪ হতে ০৩.০৬.২০২৪ তারিখের মধ্যে নিম্নে বর্ণিত বেতন ও সেশন চার্জ জমা দিয়ে অনার্স ৪র্থ বর্ষে ভর্তি হওয়ার।’

 

উক্ত বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, ‘অনার্স ৪র্থ বর্ষে ভর্তি ও সেশন চার্জ বাবদ বাংলা, ইস. ইতিহাস, দর্শন, রাষ্ট্রবিজ্ঞানের ৩৩২৫ টাকা। ইংরেজি, ইসলামী শিক্ষা, সমাজকর্ম, অর্থনীতি, উদ্ভিদবিদ্যা, প্রাণিবিদ্যা ৩৪২৫ টাকা। হিসাববিজ্ঞান, ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৩২২৫ টাকা। পদার্থবিদ্যা, গণিত বিভাগের জন্য ৩৫২৫ টাকা। ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের ৩৭২৫ টাকা। রসায়ন বিভাগে ৩৩৭৫ টাকা এবং সর্বশেষ মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগে ৩৫৭৫ টাকা।’

 

এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হওয়ার পর থেকেই অনলাইনে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যায় শিক্ষার্থীরা অসন্তোষ প্রকাশ করেছে।মাষ্টার্সে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী জানান, ‘আমাদের সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ আয়াতনের দিকদিয়ে ছোট্ট একটা ক্যাম্পাস। এখানে আমাদের যাতায়াতের জন্য কোন পরিবহন নেই। অন্যান্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধিভুক্ত কলেজের মতো আমাদের তেমন কোন সংগঠন নেই। তবুও কেনো অনন্যা কলেজের থেকে ভর্তি ও সেশন চার্জ বাবদ বাড়তি টাকা নেওয়া হয়? আর এই বাড়তি টাকা কোথায় ব্যবহার করেন।’

 

অনার্সের চতুর্থ বর্ষে ভর্তিচ্ছু বাংলা বিভাগের এক শিক্ষার্থী জানান, ‘বিজ্ঞান ক্লাবের কোন কার্যক্রম, শিক্ষার্থীদের যাতায়াতের জন্য পরিবহন আমাদের কলেজে আছে বলে তো কোনদিন দেখেনি। এই খাতে আমাদের থেকে প্রতিবছর বাড়তি টাকা নেওয়া হচ্ছে।’

 

বাংলা বিভাগের অন্য আরেক শিক্ষার্থী জানান, ‘ইডেন মহিলা কলেজে বাংলা বিভাগে ভর্তি ও সেশন চার্জ বাবদ নেওয়া হচ্ছে ২৯৬০ টাকা কিন্তু আমাদের থেকে নেওয়া হচ্ছে ৩৩২৫ টাকা। যা তুলনামূলক ৩৬৫ টাকা আমাদের থেকে বাড়তি নিচ্ছেন।’শিক্ষার্থীদের অভিযোগের বিষয়ে হিসাব সহকারী শফিকের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, ‘এই বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবো না অধ্যক্ষ স্যার আমাকে যেভাবে বলেন আমি ওভাবেই কাজ করি। শিক্ষার্থীদের অভিযোগ থাকলে অধ্যক্ষ স্যারের সাথে কথা বলুন এই বলে মিটিং এর কথা বলে অফিস থেকে বের হয়ে যান।’

 

এ বিষয়ে অধ্যক্ষ অধ্যাপক মোঃ মহসিন কবীরের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, ‘অন্যান্য সাত কলেজের সবার থেকে আমাদের কলেজের ফি সবসময় ৩০০-৪০০ টাকা কম নেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্ধারিত ফি বাহিরে টাকা নেওয়া হয়না। দুয়েক জায়গায় আমরা কমিয়ে দিয়েছি আপনার খুঁজ নিয়ে দেখেন।’

 

উল্লেখ্য যে সাত কলেজের বাকি কলেজ গুলোতে ভর্তি ও সেশন চার্জ বাবদ পূর্ণ বিবরণের তালিকা প্রকাশ করা হয় কিন্তু সোহরাওয়ার্দী কলেজে ভর্তি বিজ্ঞপ্তি নোটিশে প্রকাশ করা হয়না।

গুণ গত মান যার ভাল তার দাম একটু বেশি সিলেটের সেরা বাগানের উন্নত চা প্রতি কেজি চা দাম ৪৫০ টাকা হোম ডেলি বারি দেয়া হয়

tree

কম খরচে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিন

কম খরচে পত্রিকায় বিজ্ঞাপন দিন