সাপ্তাহিক ছুটি দুদিন চলতি বছরের বাকি সময়ও চালিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত শিক্ষামন্ত্রীর

প্রকাশিত: ১২:১৫ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৫, ২০২২

সাপ্তাহিক ছুটি দুদিন চলতি বছরের বাকি সময়ও চালিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত শিক্ষামন্ত্রীর

অনলাইন ডেস্ক : বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটি দুদিন চলতি বছরের বাকি সময়ও চালিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

 

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নিয়ে সোমবার (৫ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ে এক সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি এ ইঙ্গিত দেন।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি সাশ্রয় এবং যানজট নিরসনে গত ২৪ আগস্ট থেকে সরকারি ও স্বায়ত্তশাসিত অফিস, ব্যাংক অফিস সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত করা হয়। আর ২৭ আগস্ট থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে দুদিন ছুটি কার্যকর করা হয়েছে।

 

দুদিন সাপ্তাহিক ছুটিতে বিদ্যুৎ কতটা সাশ্রয় হচ্ছে- জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কতটুকু বিদ্যুৎ সাশ্রয় হচ্ছে সেই ডাটা আমাদের কাছে নেই। কিন্তু আমাদের কাছে অনুরোধ ছিল, একটা দিন যদি বিদ্যুতের ব্যবহার না হয়। শুধু তো বিদ্যুতের ব্যবহার না, জ্বালানিরও একটা বিষয় থাকে। স্কুলের কারণে যে পরিমাণ যানজট হয় সব মিলিয়ে যে জ্বালানি সাশ্রয়, আমাদের কাছে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য নেই। কিন্তু আমরা সবাই জানি যে খুব একেবারেই কম নয়। আমাদের এখন সাশ্রয়ের দিকে যেতেই হচ্ছে। শুধু আমাদের দেশে না সারা পৃথিবীতেই যেতে হচ্ছে।

 

দীপু মনি বলেন, নতুন কারিকুলামে আমাদের দুদিন ছুটি। সেটা আগামী বছরের জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়ার কথা। সেটা এগিয়ে এনেছি যে এখন থেকেই সেটা হোক। আমাদের শিক্ষকরা অন্যান্য পেশার চেয়ে ৫২ দিন বেশি কাজ করে বছরে। শিক্ষকদের একটু সময় দরকার, বাচ্চাদেরও একটু সময় দরকার। কারণ সারা বিশ্বে, সব স্ট্যাডি বলছে দুদিন অন্তত ছুটি হলে শেখার পক্ষেও সহায়ক এবং শেখানোর পক্ষেও সহায়ক।

 

সাপ্তাহিক ছুটি তাহলে এখন থেকে দুদিন হয়ে গেল- প্রশ্নে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমাদের সামনের বছর থেকে দুদিন। এখন সেটা এগিয়ে এনেছি। আমরা সাময়িকভাবে করেছিলাম। এখন পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করবে। কিন্তু আমরা ধরে নিচ্ছি, আর চারটা মাস আছে। এরমধ্যে আবার এসএসসি, এইচএসসি পরীক্ষা আছে।