রানীগঞ্জ সেতু পায়ে হেঁটে পারাপার করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

প্রকাশিত: ২:২৫ অপরাহ্ণ, আগস্ট ১১, ২০২২

রানীগঞ্জ সেতু পায়ে হেঁটে পারাপার করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

নিজস্ব প্রতিবেদক : পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান কুশিয়ারা নদীর ওপর নির্মিত রানীগঞ্জ সেতু পায়ে হেঁটে পারাপার করেছেন। বুধবার দুপুরে পরিকল্পনা মন্ত্রী আকস্মিক রানীগঞ্জ সেতু পরিদর্শনে যান।সেতুর মাঝের অংশ জোড়া লাগায় তিনি পায়ে হেঁটে পুরো সেতু পারাপার করেন। এসময় তিনি বলেন, সেতুর কাজ শেষ হওয়ায় খুব ভালো লাগছে। আগামী মাসে সেতুটি উদ্ধোধন করার আশা ব্যক্ত করেন। ।

পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন,সুনামগঞ্জবাসীর সিংহদ্বার এই সেতুটি বাস্তবায়িত হওয়া জেলাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি ছিল। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় থাকায় এটি বাস্তবায়িত হলো।

তিনি বলেন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে আরও বড় বড় কাজ হবে। এসময় সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আশরাফুল ইসলাম প্রামানিক , উপ সহকারী প্রকৌশলী মোস্তাফিজুর রহমান,উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি অনুপম দাস, সহকারী পুলিশ সুপার জগন্নাথপুর সার্কেল শুভাশীষ ধর, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আকমল হোসেন, সহ সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম মশাহিদ, রানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছদরুল ইসলাম,পরিকল্পনা মন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব হাসনাত হোসাইন,রানীগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি সুন্দর আলী উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য ২০১৭ সালে সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের ও তৎকালীন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বর্তমান পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান সেতুর ভিত্তি প্রস্তর স্হাপন করেন। ৭০২ মিটার দৈর্ঘ্য ও ১০.২৫ মিটার বক্স গার্ডার সেতুটি দেড়শ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত হচ্ছে। সেতুটি চালুর পর সুনামগঞ্জ থেকে ঢাকার দুরত্ব কমবে ৮০ কিলোমিটার।