September 28, 2020 12:53 am
Breaking News
Home / Home / হ্যালো ছাত্রলীগের কল্যাণে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন সেই মুক্তিযোদ্ধা

হ্যালো ছাত্রলীগের কল্যাণে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন সেই মুক্তিযোদ্ধা

নিউজ ডেস্ক : : চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন কুমিল্লার দেবিদ্বার উপজেলার যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলফু ফকির। তিনি সোমবার সকালে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে দেবিদ্বার উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউপির হোসেনপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে ফিরেছেন।

এর আগে গত ১ সেপ্টেম্বর আলফু ফকির দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়েও কোনো ধরনের চিকিৎসাসেবা না পেয়ে হতাশ ও ক্ষোভ নিয়ে বাড়ি চলে যাওয়ার সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার হলে কুমিল্লা উত্তর জেলা হ্যালো ছাত্রলীগ টিম প্রধান ও ছাত্রলীগ কুমিল্লা উত্তর জেলা সভাপতি আবু কাউছার অনিক অন্যান্য সদস্যদের নিয়ে তার বাড়ি পৌঁছে এবং তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। পরে যাবতীয় চিকিৎসা পরীক্ষ-নিরীক্ষা ও ওষুধপত্রের ব্যবস্থা করেন তিনি।

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আলফু ফকির সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরায় স্থানীয়রা আনন্দিত। তারা সাংবাদিকদের জানান, আবারো হ্যালো ছাত্রলীগ একটি মহৎ কাজের মধ্য দিয়ে মানবতার উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করলো। এভাবে ছাত্রলীগ মানুষের বিপদে পাশে থাকবে এটাই প্রত্যাশা করছি।

আলফু ফকিরের পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, যুদ্ধাহত আলফু ফকিরের হাতে-পায়ে পানি জমে গেছে। শারীরিকভাবে নানা জটিল রোগে আক্রান্ত তিনি।

মুক্তিযাদ্ধা আলফু ফকির জানান, আমি হ্যালো ছাত্রলীগের কাছে কৃতজ্ঞ। সমাজে এখনো ভালো মানুষ রয়েছে। হ্যালো ছাত্রলীগ টিম প্রধান ও ছাত্রলীগ কুমিল্লা উত্তর জেলা সভাপতি আবু কাউছার অনিক আমাকে বাবার মতো সেবা করেছে। আমার শারীরিক অবস্থা এতোটাই খারাপ ছিল যে, চিকিৎসার অভাবে আমি মরতে বসেছিলাম। অনিকের নিরলস তদারকি ও সার্বিক সহযোগিতায় মৃত্যুঝুঁকি কাটিয়ে এখন আরো কিছুদিন বেঁচে থাকার স্বপ্ন দেখছি।

ছাত্রলীগ কুমিল্লা উত্তর জেলা সভাপতি আবু কাউছার অনিক জানান, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা আলফু ফকির বর্তমানে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। হ্যালো ছাত্রলীগ তার চিকিৎসায় সব ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষার ব্যবস্থা করেছে। পাশাপাশি ওষুধ, খাবার ও নিজস্ব অর্থায়নে সেবা দিয়েছে। তাকে সার্বক্ষণিক তদারকি ও চিকিৎসা শেষে বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হাজী আবুল কাশেম ওমানী বলেন, আলফু ফকির যখন চিকিৎসার অভাবে যখন যন্ত্রণায় ভুগছিলেন। সেই মুহূর্তে হ্যালো ছাত্রলীগ টিম তার পাশে দাঁড়িয়েছে। মানবতার সেবার জন্যই ছাত্রলীগের সৃষ্টি হয়েছে।

ইউএনও রাকিব হাসান বলেন, হ্যালো ছাত্রলীগ করোনাকালীন সময়েও তাদের বীরত্ব দেখিয়েছে। মরদেহ দাফন, অসহায় দুস্থ পরিবারের বাড়ি বাড়ি খাদ্য পৌঁছে দেয়া, করোনা আক্রান্তদের বাড়িতে ওষুধ ও ফল সামগ্রী পাঠানো, বৃক্ষরোপণসহ নানা সামাজিক কাজে এগিয়ে এসেছে। আমি হ্যালো ছাত্রলীগের সমৃদ্ধি ও সফলতা কামনা করছি।

About sylhet24express

Check Also

“আগস্টের কালরাত্রি “

সুরাইয়া পারভীন লিলি    ২৬/০৯/২০২০ বাংলার আকাশে উঠেছে সূর্য জয় ধ্বনি দাও সবে, বঙ্গবন্ধু ছাড়া …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *