October 29, 2020 1:16 pm
Breaking News
Home / ফিচার / মনুষ্যত্বেকে মেরে ফেলে পশুত্বকে জয়ী হতে দেব না-লুৎফুর

মনুষ্যত্বেকে মেরে ফেলে পশুত্বকে জয়ী হতে দেব না-লুৎফুর

নিউজ ডেস্ক::আজ আমরা অর্থকরী শিক্ষাকে এত বেশি মূল্য দিচ্ছি যে মানবিক শিক্ষার দিকে কেউ দৃষ্টিই দিচ্ছি না। মানবিক শিক্ষার দিকে ফিরে না তাকালে মানবতা লুণ্ঠিত হবে, কায়েম হবে পশুর রাজত্ব।সে জন্য আর মনুষ্যত্বেকে মেরে ফেলে পশুত্বকে জয়ী হতে দেব না।

একবিংশ শতাব্দী মহাবিস্ময়ের কাল। প্রতিদিন বৈজ্ঞানিক আবিষ্কারের পাশাপাশি তথ্য-প্রযুক্তিতে আসছে চোখ ধাঁধানো পরিবর্তন। শুধু উন্নত দেশগুলোতেই নয়, উন্নয়নশীল বা কম উন্নত দেশেও প্রযুক্তির ব্যবহার লক্ষণীয়। আজ আমরা প্রযুক্তি ব্যবহারে পারঙ্গম হচ্ছি বটে, কিন্তু মানবিকতা অর্জনের ক্ষেত্রে যেন পিছিয়ে যাচ্ছি অনেকখানি দূরে। এখন আমাদের দুটো বিষয় সমানতালে এগিয়ে নেয়া দরকার_ এক. বিজ্ঞানচর্চা, দুই. শিল্প-সাহিত্য ও নন্দনতত্ত্বের চর্চা। যুগের দাবি যথার্থভাবে পূরণ করতে হলে এ দুটোর সমন্বয় আমাদের ঘটাতেই হবে। তা নাহলে যন্ত্র ব্যবহার করে করে আমরা হয়তো একদিন যন্ত্রই হয়ে যাব, হারিয়ে ফেলব মনুষ্যত্ব।
সাম্প্রতিক বাংলাদেশে বেশ কয়েকটি পাশবিক ঘটনা ঘটেছে, যা মানুষের মনে বিশেষ করে নারীদের মনে আতঙ্কের স্থায়ী ছাপ ফেলে দিয়েছে। আমাদের সমাজে পাশবিকতা প্রদর্শনে পুরুষরাই এগিয়ে আছে এ কথা বললে কে, কি মনে করবেন জানি না, তবে পত্র-পত্রিকার পরিসংখ্যানগুলো অন্তত সেই সত্যটাই প্রকাশ করছে। নারীর প্রতি ও শিশুর প্রতি ঘটমান অন্যায়-অবিচারগুলোর খ-চিত্র বারবার মধ্যযুগীয় বর্বরতার কথাই মনে করিয়ে দিচ্ছে। আমাদের নারীগুলো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নিরাপদ নয়, বন্ধু-বান্ধবের ঘরে নিরাপদ নয়, এমনকি কর্মস্থল কিংবা ক্যান্টনমেন্টের মধ্যেও মৃত্যু এসে তাদের কামড়ে ধরছে। পশুত্বের ভয়াল থাবা সর্বত্রই আজ হিংস্রতার মহড়া দিয়ে যাচ্ছে। পশুত্বকে পরাজিত করতে হলে এখন প্রয়োজন জোরেশোরে মনুষ্যত্বের পরিচর্যা করা। মনুষ্যত্বই পারে পশুত্বকে হটিয়ে শান্তির সুবাতাস প্রবাহিত করতে। আমরা যদি পারস্পরিক সৌহার্দ্য চাই, ঐক্য চাই; চাই যদি বাসযোগ্য সমাজ কাঠামো, তাহলে মানবতার নিভন্ত প্রদীপটাকেই উসকে দিতে হবে। অনির্বাণ আলো জ্বালাতে হবে প্রীতির ও সহমর্মিতার। হিংসার কুশায়া ছিন্ন করে ভালোবাসার আলোকিত প্রান্তরে যাত্রা শুরু করতে হবে এখনই। এই কাজটি করতে যদি আমরা অবহেলা বা আলসেমি করি, তাহলে আমরা শুধু সুন্দর জীবনেরই কবর খুড়ব না, মৃত্যু-উপত্যকায় রূপ নিবে গোটা মানবসমাজ।

ইতিমধ্যে সিলেটের এমসি কলেজ হোস্টেলে স্বামীকে বেঁধে রেখে এক তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনার সংঘটিত ধর্ষণ মামলার রেশ কাটতে না কাটতে বেশ কয়েকটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটে গেছে আরো সিলেটসহ সারাবাংলায়। এ জন্য জাগ্রত করতে হবে মানবিকবোধ। নন্দন চর্চার পরিধি আরও বাড়াতে হবে। আজ আমরা অর্থকরী শিক্ষাকে এত বেশি মূল্য দিচ্ছি যে মানবিক শিক্ষার দিকে কেউ দৃষ্টিই দিচ্ছি না। মানবিক শিক্ষার দিকে ফিরে না তাকালে মানবতা লুণ্ঠিত হবে, কায়েম হবে পশুর রাজত্ব।
পশুর স্তর থেকে ধীরে ধীরে মানবিকতার স্তরে ওঠে এসেছে মানুষ। বিবর্তনের ইতিহাস বলে_ পশুত্ব থেকে মনুষ্যত্ব অর্জনের জন্য তাকে অপেক্ষা করতে হয়েছে কোটি কোটি বছর। কোটি কোটি বছরের সাধনায় মানুষ যে মনুষ্যত্ব অর্জন করেছে আজ সেই মনুষ্যত্ব বিসর্জন দিয়ে মানুষ কি আবার পশুস্তরে ফিরে যেতে চায়? যে নিজেকে পশু বানাতে চায় সে নিজেকে তাই বানাক। কিন্তু মানুষ আমরা যারা মানুষ থাকতে চাই_ আমাদের প্রাণ থাকতে কিছুতেই মনুষ্যত্বের মৃত্যু ঘঠিয়ে পশুত্বকে জয়ী হতে দেব না।

লেখক:সাংবাদিক শেখ মোঃ লুৎফুর রহমান

About sylhet24express

Check Also

আয়শা সিদ্দিকা’র তৃতীয় জন্মদিন পালন

ডেস্ক রিপোর্ট ::স্বর্ণালী সাহিত্য পর্ষদ,সিলেট এর সদস্য ইসমাঈল আলী টিপু ও রেজিয়া আক্তার মাছুমা দম্পতির …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *