Thursday , June 27 2019
Home / সমগ্র বাংলাদেশ

সমগ্র বাংলাদেশ

একনেকে রেলওয়ের আধুনিকায়নসহ ১০ প্রকল্প অনুমোদন

অনলাইন ডেস্ক : বাংলাদেশ রেলওয়ের ২১টি মিটারগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক লোকোমোটিভ নবরুপায়নসহ ১০ প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক)। এসব প্রকল্প বাস্তবায়নে মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৬ হাজার ৯৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা। আজ মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলানগর এনইসি সম্মেলনকক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় এসব প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়।

সভাশেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান প্রকল্প সম্পর্কে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন। তিনি জানান, একনেকে অনুমোদিত ১০ প্রকল্পে মোট ব্যয় হবে ৬ হাজার ৯৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে খরচ করা হবে ৬ হাজার ৬৮৬ কোটি ১৩ লাখ টাকা,বাস্তবায়নকারী সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় হবে ২৪১ কোটি ৫২ লাখ এবং প্রকল্প সাহায্য হিসেবে বৈদেশিক সহায়তা পাওয়া যাবে ৩৯ কোটি ৫৮ লাখ টাকা।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, রেলের ২১ ইঞ্চিন আধুনিকরণ প্রকল্পের আওতায় রেলের ২১টি এমজি লোকোমোটিভ পুনর্বাসনের মাধ্যমে নবরূপায়ন করা হবে। এতে লোকোমোটিভগুলোর কর্মক্ষমতা যেমন বৃদ্ধি পাবে তেমনি চলাচলে গতিশীলতা বাড়বে। এর মাধ্যমে যাত্রী সেবা নিশ্চিত হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশ রেলওয়ের ২১টি মিটারগেজ ডিজেল ইলেকট্রিক লোকোমোটিভ নবরূপায়ন প্রকল্পের ব্যয় ধরা হয়েছে ২৪২ কোটি ১৪ লাখ টাকা। জানুয়ারি ২০১৯ হতে জুন ২০২২ মেয়াদে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হবে।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে সমন্বিতভাবে সরকারি অফিস স্থাপনের নির্দেশ দিয়েছেন। এছাড়া ছোট, মাঝারি ও বড় এই তিন ভাবে ভাগ করে জেলা সদরের সরকারি অফিসগুলো যেন একই ডিজাইনের হয় সেই নির্দেশনাও প্রদান করেছেন তিনি।

একনেকে অনুমোদিত প্রকল্পসমূহ হলো-বামনডাংগা (গাইবান্ধা)-শঠিবাড়ী-আফতাবগঞ্জ জেলা মহাসড়ক প্রশস্তকরণ প্রকল্প, যার মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৪২৫ কোটি ৮১ লাখ টাকা। গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন জোনের প্রধান সংযোগ রাস্তাগুলি প্রশস্তকরণসহ নর্দমা ও ফুটপাত নির্মাণ প্রকল্পের খরচ ধরা হয়েছে ৩ হাজার ৮২৮ কোটি টাকা। অফিসার্স ক্লাব, ঢাকা এর ক্যাম্পাসে বহুতল ভবন নির্মাণ প্রকল্পের ব্যয় হবে ২২৮ কোটি টাকা।

মানিকগঞ্জ বহুতল বিশিষ্ট সমন্বিত সরকারি অফিস ভবন নির্মাণ প্রকল্পের খরচ ধরা হয়েছে ৯৫ কোটি টাকা। ঢাকাস্থ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের অধিকতর উন্নয়ন প্রকল্পের খরচ ধরা হয়েছে ৯৮ কোটি টাকা। দুস্থ শিশু প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্র পুনঃনির্মাণ, কোনাবাড়ি, গাজীপুর প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৮১ কোটি টাকা। সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলা ও জননিরাপত্তা নিশ্চিতকল্পে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের সক্ষমতা বাড়ানোর প্রকল্পের খরচ ধরা হয়েছে ৭৯ কোটি টাকা। বৃহত্তর ফরিদপুর সেচ এলাকা উন্নয়ন প্রকল্পে ব্যয় হবে ২০০ কোটি টাকা। ওয়েষ্ট জোন এলাকায় বিদ্যুৎ বিতরণ ব্যবস্থার সম্প্রসারণ ও আপগ্রেডেশন প্রকল্পের খরচ ধরা হয়েছে ১ হাজার ৬৮৭ কোটি টাকা। বাসস

সিলেটের সঙ্গে ঢাকা-চট্টগ্রামের রেল যোগাযোগ আজকের মধ্যে : রেল সচিব

মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় উপবন এক্সপ্রেসের দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে খালে পড়ে যায়-সংগৃহীত ছবি

অনলাইন ডেস্ক  : মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় উপবন এক্সপ্রেসের দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে খালে পড়ে যাওয়ার ঘটনার পর থেকে সিলেটের সঙ্গে ঢাকা ও চট্টগ্রামের রেল যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে।

আজ সোমবারের মধ্যে সিলেটের সঙ্গে ঢাকা ও চট্টগ্রামের রেল যোগাযোগ পুনরায় চালুর চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রেলওয়ে সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন। তখন আজ কয়টার মধ্যে ট্রেন যোগাযোগ চালু হতে পারে সে বিষয়ে নির্দিষ্ট সময় উল্লেখ করেননি রেল সচিব।

সোমবার সকালে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে রেলওয়ে সচিব মো. মোফাজ্জেল হোসেন এক ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানান। তি‌নি ঘটনাস্থল প‌রিদর্শন ক‌রে কুলাউড়ায় অবস্থান কর‌ছেন।

সিলেট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া আন্তঃনগর উপবন এক্সপ্রেস রোববার রাত পৌনে ১২টার দিকে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে। ট্রেনটির দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে খালে পড়ে যায় এবং একটি বগি উল্টে যায়। মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল স্টেশন থেকে ২০০ মিটার দূরে কালা মিয়া বাজার সংলগ্ন ব্রিজে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

উপবন এক্সপ্রেসের দুটি বগি লাইনচ্যুত হয়ে খালে পড়ে যাওয়ার ঘটনায় সোমবার সকাল পর্যন্ত চারজনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ ও বিজিবির সদস্যদের সমন্বয়ে উদ্ধারকাজ অব্যাহত আছে।

নিহত চারজনের মধ্যে দুইজনের পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন- ফাহমিদা ইয়াসমীন ইভা। তি‌নি সিলেট ওসমানি মেডিকেল কলেজের নার্সিং ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থী, বাড়ি সিলেটে। অপরজন মনোয়ারা পারভীন (৪৫)। বাড়ি মৌলভীবাজারের কুলাউড়া এলাকায়।

দক্ষিণ এশিয়ার নারীদের রয়েছে বিজয়গাঁথা গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস—স্পীকার

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, ’৫২ এর ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে ’৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান ’৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধসহ সকল গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে অনেক বাঁধা অতিক্রম করে নারীরা এগিয়ে এসেছে–অবদান রেখেছে।সে কারনেই এগিয়ে গেছে সভ্যতা ও সমাজ। শুধু বাংলাদেশ নয় সমগ্র দক্ষিণ এশিয়ায় নারীরা স্বীয় কর্মক্ষেত্রে সফলতার দৃষ্টান্ত রাখছে—যা অনুসরণযোগ্য এবং অনুপ্রেরণার উৎস। দক্ষিণ এশিয়ার নারীদের রয়েছে বিজয়গাঁথা গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাস।

তিনি আজ শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র শিক্ষক মিলনায়তনে (টিএসসি) বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদের ৪৯তম বার্ষিক আন্তর্জাতিক সম্মেলন ২০১৯ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদ ইতিহাসে নারী:দক্ষিণ এশিয়া প্রসঙ্গ শীর্ষক প্রতিপাদ্য নিয়ে আন্তর্জাতিক ইতিহাস সম্মেলন আয়োজন করে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন। সম্মেলন উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি।

স্পীকার বলেন, কৃষি,অর্থর্নীতি ও রাজনীতিতে নারীর উল্লেখযোগ্য অবদান রয়েছে। আবার অনেক নারী অবদান রাখা সত্ত্বেও কাজের স্বীকৃতি পাননি।এ সকল নারীর অবদান চিহ্নিত করতে হবে। এসময় তিনি নারীর গৌরবজ্জ্বল অবদান তুলে ধরতে ইতিহাস গবেষকদের গবেষণা বৃদ্ধির আহবান জানান।

ড. শিরীন শারমিন বলেন,বাঙালী জাতির ইতিহাস সংগ্রাম ও শোষিত হওয়ার ইতিহাস।আর বঙ্গবন্ধু জনগণের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য আজীবন লড়াই সংগ্রাম করেছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশের স্বাধীনতা।এ সকল ক্ষেত্রেই বাঙালীর রয়েছে জয়গাঁথা –বীরত্বের ইতিহাস।

বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য উত্তরসূরি শেখ হাসিনাকে জীবন্ত ইতিহাস উল্লেখ করে স্পীকার বলেন, ১৯৮১ সালে স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের পর বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়ন, প্রাতিষ্ঠানিক গনতন্ত্র প্রতিষ্ঠা, উন্নয়ন,নারী জাগরণসহ জনকল্যাণে নিজেকে উৎসর্গ করে ইতিহাসের নব অধ্যায়ের সূচনা করেন তিনি। বঞ্চিত মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে তিনি নিরলসভাবে কাজ করছেন যা ইতিহাসেরই অংশ।বাঙালীর গৌরবগাঁথার ইতিহাস ধারণ করার আহবান জানিয়ে ড.শিরীন শারমিন বলেন,বাঙালী জাতির অবস্থানকে বিশ্বসভায় উচ্চ আসনে অধিষ্ঠিত করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি আরও বলেন,একবিংশ শতকের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় নারীদের অগ্রযাত্রা আশাব্যঞ্জক। আর এই সময়ে বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদ ইতিহাসে নারী : দক্ষিণ এশিয়া প্রসঙ্গ শীর্ষক প্রতিপাদ্য নিয়ে বার্ষিক আন্তর্জাতিক ইতিহাস সম্মেলন আয়োজনের যে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে তা সময়োপযোগী।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নান সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন।স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ইতিহাস পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড, এ কে এম গোলাম রব্বানী।

সম্মেলনে বাংলাদেশ ও ভারতের ইতিহাস গবেষকবৃন্দ,বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকমণ্ডলী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ অংশ নেন।এর আগে স্পীকার অতিথিদের নিয়ে ইতিহাস পরিষদের স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন

সুনামগঞ্জে দুই পক্ষের সংঘর্ষে স্কুল শিক্ষার্থী নিহত, আহত ২০

মো : উসমান গনী : সুনামগঞ্জের পাগলায় সিএনজি স্ট্যাড স্থাপন করে সড়ক দখল করা নিয়ে দুই গ্রামবাসীর সংঘর্ষে এক শিক্ষার্থী নিহত এবং উভয় পক্ষের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ ৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এই সংঘর্ষ হয়। ফের সংঘর্ষের আশংকায় পাগলাবাজারে বিপূল সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ উপজেলার পাগলা বাজারে সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়কের একপাশে সিএনজি স্ট্যান্ড করায় পধচারীদের চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। বৃহস্পতিবার রায়পুর গ্রামের সেইচা মিয়ার স্ত্রী আনোয়ারা বেগম মারা গেলে ওই পথ দিয়ে পাগলা হাইস্কুল মাঠে মরদেহ নিয়ে যাওয়ার জন্য রওয়ানা দেন তার স্বজনরা। এসময় রায়পুর গ্রামের মরদেহ বহনকারীরা সিএনজি চালকদের চলাচলের পথ থেকে সিএনজি সরানোর জন্য বলেন। এই নিয়ে দুই পক্ষে কথা কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে দুই পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

রায়পুর গ্রামের লোকজন মরদেহ স্কুল মাঠে রেখে এসে সংঘর্ষে জড়ায়। সংঘর্ষের এক পর্যায়ে পাগলা স্কুল এন্ড কলেজের ১০ম শ্রেণির শিক্ষার্থী শাহনূর মিয়া বাড়ি ফেরার সময় সিএনজি স্ট্যান্ডের সামনে আসলে প্রতিপক্ষের লোকজন রামদা দিয়ে এলোপাতাড়ি কোপায়। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় ওই স্কুল শিক্ষার্থী। এরপর তিন দফা সংঘর্ষে উভয়পক্ষের কমপক্ষে ১৫ জন আহত হন।

আহতদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশংকাজনক। এরা হলেন- কান্দিগাঁওয়ের হাফিজুর (৩৮) এবং রায়পুরের ছোটন মিয় (২০)। তাদেরকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্য আহতদের সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে ও কৈতক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে।

দক্ষিণ সুনামগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হারুনুর রশিদ জানান, সিএনজি চালক ও শ্রমিকদের সঙ্গে রায়পুর গ্রামের একটি পক্ষের সংঘর্ষে ১ জন নিহত এবং কয়েকজন আহত হয়েছে। এ ঘটনায় ৯ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মহাজনপট্টি ও কালিঘাটে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, হেলদি সিটি, স্মার্ট সিটি ও পর্যটন সিটি হিসেবে সিলেট নগরকে সাজাতে যা যা করার দরকার তার সবকিছুই করবে সিটি করপোরেশন। প্রয়োজনে জীবন বাজি রেখে নগরবাসীকে দেওয়া ওয়াদা পূর্ণ করবেন তিনি।

রোববার (১৬ জুন) নগরীর বন্দরবাজার, মহাজনপট্টি ও কালিঘাট এলাকায় রাস্তায় অবৈধ পার্কিং ও ফুটপাতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শেষে উপস্থিত সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন তিনি।

মেয়র বলেন, নগর পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছি। এ কাজে নগরের সকল শ্রেণী পেশার মানুষকে এগিয়ে আসার প্রয়োজন।

এর আগে রোববার বেলা ১২টায় নগর ভবন থেকে সিসিকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও সিসিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে নিয়ে অভিযানে নামেন মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী।

নগরীর বন্দরবাজার, মহাজনপট্টি ও কালিঘাট এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়।

অভিযানে এসব এলাকার রাস্তার দুই পাশ ও ফুটপাত দখল করে স্থাপনা তৈরি করে ব্যবসা করার অভিযোগে প্রায় শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ ও বিপুল পরিমাণ মালামাল ও আসবাবপত্র জব্দ করা হয়।

অভিযানে সিসিকের ওয়ার্ড কাউন্সিলর সৈয়দ তৌফিকুল হাদী, ইলিয়াছুর রহমান, আব্দুল মুহিত জাবেদ, এসএম সওকত আমীন তৌহিদ, সিসিকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিপুল কুমারসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

গোবিন্দগঞ্জে নদীতে নেমে কিশোর নিখোঁজ

অনলাইন ডেস্ক : গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় করতোয়া নদীতে গোসল করতে নেমে এক কিশোর নিখোঁজ হয়েছে।
রোববার দুপুরে কাটাবাড়ী ইউনিয়নের ফকিরগঞ্জ ঘাটে এ ঘটনা ঘটে।

আসিফ মিয়া (১৩) ফকিরগঞ্জ গ্রামের পলাশ মিয়ার ছেলে ও কাটাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্র।

স্বজন ও স্থানীয়রা জানান, আসিফ বাড়ির পাশে করতোয়া নদীতে গোসল করার এক পর্যায়ে পানিতে ডুবে যায়। এরপর স্থানীয়রা তাকে খোঁজাখুজি করেন। না পেয়ে গোবিন্দগঞ্জের ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেওয়া হয়। তাদের একটি ইউনিট উদ্ধার কাজে যোগ দেয়।।

গোবিন্দগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের ইনচার্জ রতন কুমার শর্মা বলেন, নিখোঁজ কিশোরকে উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছেন।

“নদীতে পানি কম থাকলেও বেশ কিছু বড় বড় গর্ত রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে ছেলেটি কোনো গর্তে ডুবে গিয়ে থাকবে।”

এলাকাবাসীর অভিযোগ, নদীতে পানি কম থাকলেও অবৈধ বালু উত্তোলনের কারণে নদীতে অসংখ্য চোরা গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। পানিতে ডোবার পর আসিফ কোনো চোরা গর্তে ডুবে থাকতে পারে। ফলে খোঁজাখুজি করেও তাকে পাওয়া যাচ্ছে না।

উপদেষ্টা সম্পাদক : মো: রেজাউল ওয়াদুদ উপদেষ্টা সম্পাদক : শহীদুল ইসলাম পাইলট উপদেষ্টা সম্পাদক : আহমেদ আবু জাফর উপদেষ্টা সম্পাদক : মুহাম্মদ আওলাদ হোসেন সম্পাদক : মো: আবু বক্কর তালুকদার ৩৭০/৩,কলেজ রোড,আমতলা,আশকোনা,ঢাক-১২৩০