Home / খেলাধুলা (page 2)

খেলাধুলা

চেলসিকে হারিয়ে উয়েফা সুপার কাপ লিভারপুলের

অনলাইন ডেস্ক : নির্ধারিত সময়ের পর অতিরিক্ত সময়েও সমতা থাকল দুই ইংলিশ ক্লাবের লড়াইয়ে। টাইব্রেকারে চেলসির শেষ শটটি ঠেকিয়ে দলকে উয়েফা সুপার কাপের শিরোপা এনে দিলেন লিভারপুলের গোলরক্ষক আদ্রিয়ান।
বুধবার তুরস্কের ইস্তানবুলে টাইব্রেকারে ৫-৪ গোলে জিতে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। অলিভিয়ে জিরুদের প্রথমার্ধের গোলে এগিয়ে গিয়েছিল চেলসি। দ্বিতীয়ার্ধে সমতা ফেরান সাদিও মানে। অতিরিক্ত সময়েও একটি করে গোল করে দুই দল।

২৩তম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত চেলসি। স্প্যানিশ ফরোয়ার্ড পেদ্রোর শট আদ্রিয়ানের হাতে লেগে ক্রসবারে লাগলে গোল বঞ্চিত হয় গতবারের ইউরোপা লিগ চ্যাম্পিয়নরা।

৩৬তম মিনিটে চেলসিকে এগিয়ে নেন জিরুদ। যুক্তরাষ্ট্রের ফরোয়ার্ড ক্রিস্তিয়ান পুলিসিচের ডিফেন্স চেরা পাস পেয়ে দ্রুত গতিতে এগিয়ে ছোট ডি-বক্সের সামান্য বাইরে থেকে কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ফরাসি এই ফরোয়ার্ড।

৪০তম মিনিটে পুলিসিচ লিভারপুলের জালে বল জড়ালেও অফ-সাইডের কারণে গোল বাতিল করেন রেফারি। এ ম্যাচের দায়িত্বে থাকা ফ্রান্সের স্তেফানি ফ্রাপা প্রথম নারী রেফারি হিসেবে উয়েফা আয়োজিত ছেলেদের বড় কোনো প্রতিযোগিতায় ম্যাচ পরিচালনা করলেন।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বদলি হিসেবে নেমেই সমতা ফেরাতে বড় ভূমিকা রাখেন রবের্তো ফিরমিনো। ৪৮তম মিনিটে ফাবিনিয়োর উঁচু করে ডি-বক্সে বাড়ানো বল আগুয়ান গোলরক্ষক কেপা আরিসাবালাগা নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার আগ মুহূর্তে টোকা দিয়ে ডান পাশে থাকা অরক্ষিত সাদিও মানেকে দেন ফিরমিনো। ফাঁকা পোস্টে সহজেই বল পাঠান গত মৌসুমে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা।

৭৬তম মিনিটে আরিসাবালাগার নৈপুণ্যে বেঁচে যায় চেলসি। ৯৫তম মিনিটে লিভারপুলকে এগিয়ে নেন মানে। বাঁ প্রান্ত দিয়ে ডি-বক্সে ঢুকে বাইলাইনের কাছাকাছি থেকে ফিরমিনোর করা কাট ব্যাক নিয়ন্ত্রণে নিয়ে উঁচু কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন সেনেগালের এই ফরোয়ার্ড।

ছয় মিনিট পর স্পট কিক থেকে সমতা ফেরান জর্জিনিয়ো। ট্যামি আব্রাহামকে ডি-বক্সে আদ্রিয়ান ফাউল করলে পেনাল্টি পায় ফ্র্যাঙ্ক ল্যাম্পার্ডের দল।
টাইব্রেকারে পাঁচটি শটেই গোল করে লিভারপুল। চেলসির হয়ে আব্রাহামের নেওয়া শেষ শটটি ফিরিয়ে দেন আদ্রিয়ান। নিজেদের ইতিহাসে চতুর্থবারের মতো উয়েফা সুপার কাপ ঘরে তুলল লিভারপুল। গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের পর লিভারপুলের কোচ হিসেবে দ্বিতীয় শিরোপা জিতলেন জার্মান কোচ ক্লপ।

প্রতি বছর নতুন মৌসুমের শুরুতে আগের মৌসুমের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শিরোপাজয়ী ও ইউরোপা লিগের চ্যাম্পিয়নের মধ্যে উয়েফা সুপার কাপের এই লড়াইটি হয়ে থাকে। এবারই প্রথম এতে মুখোমুখি হলো দুটি ইংলিশ ক্লাব। আর প্রতিযোগিতায় এ নিয়ে অষ্টমবারের মতো অংশ নিল একই দেশের দুটি ক্লাব।

কমনওয়েলথ গেমসে ফিরছে মেয়েদের ক্রিকেট

অনলাইন ডেস্ক : ২০২২ সালে যুক্তরাজ্যে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কমনওয়েলথ গেমস।এই আসরে হবে মেয়েদের টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতা।

শীর্ষ আট দল অংশ নেবে এতে। সব ম্যাচই হবে এজবাস্টনে। এর ফলে ২৪ বছর পর আবারও কমনওয়েলথ গেমসে অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে ক্রিকেট।

কমনওয়েলথ গেমসে শেষবার ক্রিকেট খেলা হয়েছিল ১৯৯৮ সালে। কুয়ালালামপুরে ৫০ ওভারের ফরম্যাটে অস্ট্রেলিয়াকে ৪ উইকেটে হারিয়ে সোনা জিতেছিল দক্ষিণ আফ্রিকার পুরুষ দল।

এ প্রসঙ্গে কমনওয়েলথ গেমস ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট ডেম লুইস মার্টিন বলেছেন, ‘আজ ঐতিহাসিক একটা দিন এবং কমনওয়েলথ গেমসে ক্রিকেটকে ফেরাতে পেরে আমরা আনন্দিত।’

আগামী ২৭ জুলাই থেকে ৭ আগস্ট পর্যন্ত হবে কমনওয়েলথ গেমস, যেখানে ১৮টি খেলায় হবে ২৬৪টি ইভেন্ট। সূত্র: ক্রিকবাজ

জিম্বাবুয়েকে নিয়েই বাংলাদেশে ত্রিদেশীয় সিরিজ

আজারের গোলে রিয়ালের জয়

অনলাইন ডেস্ক : রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে প্রথম গোলের দেখা পেলেন এদেন আজার। বেলজিয়ামের এই ফরোয়ার্ডের একমাত্র গোলে অস্ট্রিয়ার ক্লাব রেড বুল জাল্টসবুয়াককে হারিয়েছে জিনেদিন জিদানের দল।
অস্ট্রিয়ার রেড বুল অ্যারেনায় বুধবার প্রীতি ম্যাচে প্রথমার্ধে পার্থক্য গড়ে দেওয়া গোলটি করেন জুনে চেলসি থেকে রিয়ালে যোগ দেওয়া আজার।

ম্যাচের ১৯তম মিনিটে দারুণ নৈপুণ্যে দলকে এগিয়ে দেন আজার। নিজেদের সীমানা থেকে করিম বেনজেমার থ্রু বল ধরে ডিফেন্ডারের বাধা এড়িয়ে ডি-বক্সের বাইরে থেকে জোরালো শটে গোলটি করেন বেলজিয়ামের এই ফরোয়ার্ড।

চলতি প্রাক-মৌসুমে টানা দ্বিতীয় জয় পেল রিয়াল। গত সপ্তাহে আউডি কাপের তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচে ফেনেরবাচকে ৫-৩ গোলে হারিয়েছিল মাদ্রিদের দলটি। এর আগের চারটি প্রীতি ম্যাচের তিনটিতে হেরেছিল জিদানের শিষ্যরা।

আর্সেনালকে হারিয়ে গাম্পের ট্রফি বার্সার

ওয়ার্নারকে অভিনব হলুদ কার্ড দেখাল ইংলিশ সমর্থকরা

গ্যালারি থেকে ওয়ার্নারকে উদ্দেশ্য করে ‘সিরিশ কাগজ’-এর হলুদ কার্ড দেখানো হয়। ছবি: অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক : বিতর্ক দিয়ে শুরু হলো ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার ক্রিকেট দ্বৈরথ-অ্যাশেজ। দুই দেশের মধ্যে শুরু হওয়া এ মর্যাদার লড়াইয়ে প্রথমে করমর্দন অনুষ্ঠান বাতিল। তার পর অস্ট্রেলিয়া ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের উদ্দেশ্যে সিরিশ কার্ড দেখানো। যা নিয়ে মাঠের বাইরেও জমে উঠেছে লড়াই।

পাঁচ ম্যাচ সিরিজে এজবাস্টনের প্রথম ম্যাচে টস জিতে অস্ট্রেলিয়া আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ইনিংস শুরু করেন ২০১৮ সালের মার্চে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে কেপটাউন টেস্টে বল টেম্পারিংয়ের দায়ে নিষেধাজ্ঞার শাস্তি পাওয়া ক্যামেরন বেনক্রফট ও ডেভিড ওয়ার্নার। দলকে ভালো শুরু এনে দিতে পারেননি বেনক্রফট ও ওয়ার্নার। চতুর্থ ওভারের পঞ্চম বলে আউট হয়ে যান ওয়ার্নার। তাকে ২ রানে থামিয়ে দেন ইংল্যান্ডের ডান-হাতি পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড।

আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরতে থাকেন ওয়ার্নার। তার মাঠ থেকে বের হবার ঠিক আগ মুহূর্তে গ্যালারির এক অংশের দর্শক উঠে দাঁড়িয়ে ওয়ার্নারকে উদ্দেশ্য করে ‘সিরিশ কাগজ’-এর হলুদ কার্ড দেখান।

ওয়ার্নারকে উদ্দেশ্য করে দর্শকদের এই ‘সিরিশ কাগজ’ দেখানো ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল করেছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট।

এটি দেখে ক্ষুব্ধ হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক লেগ-স্পিনার ও কিংবদন্তি খেলোয়াড় শেন ওয়ার্ন। তিনি বলেন, ‘দর্শকদের কাছ থেকে এমন আচরণ দুঃখজনক। প্রত্যেক খেলোয়াড়কেই সম্মান করা উচিত দর্শকদের। নয়তো ক্রিকেটের ভাবমূর্তি নষ্ট হবে।’

গত ওয়ানডে বিশ্বকাপে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে ওয়ার্নার-স্মিথকে উদ্দেশ্য গ্যালারি থেকে কটূক্তি করেছিলো বিরাট কোহলির দেশের সমর্থকরা।

নেইমারের বিরুদ্ধে করা ধর্ষণ মামলা স্থগিত

নেইমারের বিরুদ্ধে নাজিলা ত্রিন্দাদে মেন্ডেজ ডি সুজার দায়ের করা ধর্ষণ মামলাটি স্থগিত করা হয়েছে। ফটো : আখায়ের ডট কম

অনলাইন ডেস্ক : প্যারিসের এক হোটেলে ব্রাজিলিয়ান ফুটবলার নেইমারের বিরুদ্ধে মডেল নাজিলা ত্রিন্দাদে মেন্ডেজ ডি সুজার দায়ের করা ধর্ষণ মামলাটি পর্যাপ্ত প্রমাণের অভাবে স্থগিত করা হয়েছে বলে তদন্তকারী পুলিশ জানিয়েছে।

যদিও সাও পাওলো অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, চূড়ান্ত সিদ্ধান্তের জন্য মামলাটি এখন প্রসিকিউটরদের কাছে প্রেরণ করা হবে।

ব্রাজিলিয়ান মডেল নাজিলা ত্রিন্দাদে মেন্ডেজ ডি সুজা মামলা দায়েরের সময় উল্লেখ করেছিলেন, গত ১৫ মে প্যারিসের এক হোটেলে নেইমার তাকে ধর্ষণ করেন। এ সময় নাকি নেইমার মাতাল অবস্থায় বেশ আক্রমণাত্মক মেজাজে ছিলেন।

এরপর নেইমার ভিডিও লাইভে এসে ফাঁস করেন তার ও ওই মডেলের মধ্যকার সমস্ত হোয়াটসঅ্যাপ কথোপকথন। তাতে দেখা যায়, সেই মডেল নিজে থেকেই বিভিন্ন আপত্তিকর ছবি দিয়ে নেইমারকে উত্তেজিত করার চেষ্টা করছেন।

মামলাটি নিয়ে ব্রাজিল পুলিশ অনুসন্ধানে নামে। কোপা আমেরিকার জন্য ব্রাজিল দলের প্রস্তুতি ক্যাম্প বসানো গ্রাঞ্জা কোম্পানি কমপ্লেক্সে গিয়ে পুলিশ নেইমারকে জিজ্ঞাসাবাদও করে।

ধর্ষণের অভিযোগ ওঠার পরপরই আমেরিকার বিখ্যাত অর্থনৈতিক সার্ভিস কর্পোরেশন মাস্টারকার্ড নেইমারের সঙ্গে তাদের বিজ্ঞাপন প্রচারণার চুক্তি স্থগিত রাখে। নেইমারের বাবা নেইমার সিনিয়র ছেলের পাশেই থাকেন।

শুরু থেকেই ধর্ষণের অভিযোগ অস্বীকার করতে থাকা নেইমার এ বিষয়ে সকল তথ্য প্রমাণাদি আদালতের কাছে উপস্থাপনও করেন এই স্ট্রাইকার।

মুশফিকের দৃঢ়তায় লড়াইয়ের পুঁজি বাংলাদেশের

মুশফিক
ছবি: এএফপি

অনলাইন ডেস্ক : কলম্বোর প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম রোববারের ম্যাচে অনেকটাই ফাঁকা। মালিঙ্গার বিদায়ী ম্যাচে দর্শকদের উল্লাসে শ্রীলংকা মরণ কামড় দিতে মুখিয়ে ছিল। চাপে ছিল বাংলাদেশ। কিন্তু মিউয়ে যাওয়া প্রেমাদাসায় দ্বিতীয় ম্যাচে নিজেদের ভুলে রুখে দাঁড়াতে পারেনি বাংলাদেশ। শুরুতে তামিম-সৌম্যরা আউট হয়ে দলের চাপ বাড়িয়ে ফেরেন। মিঠুন-মাহমুদুল্লাহ দলকে আরও বিপর্যয়ে ঠেলে দেন। মুশফিক-মিরাজের দৃঢ়তায় অপেক্ষা করা লজ্জা সামল দেয় বাংলাদেশ। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেট হারিয়ে বাংলাদেশ তুলতে পারে ২৩৮ রান।

ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে শুরুর ৬৮ রানে চার উইকেট হারায় বাংলাদেশ। সৌম্য সরকার ১১ এবং তামিম ইকবাল ১৯ রান করে ফেরেন। টানা ছয় ম্যাচে বোল্ড হন বাংলাদেশ ওপেনর তামিম। সাকিব আল হাসানের অভাব পূরণের দায়িত্ব পাওয়া মোহাম্মদ মিঠুন এ ম্যাচেও ব্যর্থ হন। তিনি করেন ১২ রান। এরপর মাহমুদুল্লাহ ৬ করে ফিরলে ব্যাটিং বিপর্যয় প্রকট হয় টাইগারদের।

সাব্বির রহমান এবং মোসাদ্দেক হোসেনকে সেই চাপ সামাল দিতে হতো। সঙ্গ দিতে হতো দারুণ ছন্দে থাকা মুশফিকুর রহিমকে। কিন্তু তারাও পর পর ব্যর্থ হয়ে ফেরেন। বাংলাদেশ দল ১১৭ রানে হারায় ৬ উইকেট। সাব্বির রহমান ভুল বোঝাবুঝির শিকার হয়ে রান আউট হন ১১ করে। নন-স্ট্রাইক প্রান্তে থাকা মুশফিক রানের কল দিয়ে আবার না করেন। ঝাপিয়ে পড়েও ক্রিজে ফিরতে পারেননি আগের ম্যাচে ফিফটি করা সাব্বির। মোসাদ্দেক আউট হন ১৩ রান করে।

সেখান থেকে মুশফিকুর রহিম এবং মেহেদি মিরাজ গড়েন ৮৪ রানের জুটি। মিরাজ ৪৩ রান করে আউট হন। সেঞ্চুরির পথে থাকা মুশফিক ৯৮ রানে অপরাজিত থাকেন। ছয়টি চার ও একটি ছক্কা মারেন তিনি। ইনিংসের শেষ ওভারের পঞ্চম বলে সিঙ্গেল না নিয়ে, বাউন্ডারির ঝুঁকি নিলে মুশি হয়তো সেঞ্চুরি পেয়ে যেতেন । মুশফিক-মিরাজ ছাড়া বাংলাদেশের আর কোন ব্যাটসম্যান বিশের ঘরে রান নিয়ে যেতে পারেননি।

শ্রীলংকার হয়ে নুয়ান প্রদীপ, ইসুরু উদানা এবং আকিলা ধনাঞ্জয়া দুটি করে উইকেট নেন। শুরুতে ধাক্কা দেন দুই পেসার প্রদীপ ও ইসুরু। পরে গুরুত্বপূর্ণ দুই উইকেট তুলে নেন স্পিনার ধনাঞ্জয়া। সাব্বির ছাড়াও শেষ দিকে তাইজুল ইসলাম রান আউটে কাটা পড়েন।

অল্পের উপর দিয়েই গেল মেসির

ছবি : সংগৃহীত

অনলাইন ডেস্ক : কোপা আমেরিকায় লালকার্ড পাওয়া ও আয়োজক কনমেবল এর বিপক্ষে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বড় ধরনের শাস্তির মুখে ছিলেন আর্জেন্টাইন সুপার লিওনেল মেসি। ৩২ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়কে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা দেয়া হতে পারে বলেও গুজব চলছিলো জোরেসোরে। এতে বার্সেলোনা তারকার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার প্রায় শেষ হওয়ার পথে ছিলো। ভক্তরাও পড়েছিলেন মহাদুঃশ্চিন্তায়। শেষমেষ এ যাত্রায় অল্পের উপর দিয়েই গেল মেসির। শাস্তি হিসেবে মাত্র ১৫’শ ডলার জরিমানা ও এক ম্যাচের নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন পাঁচবারের বর্ষসেরা এই ফুটবলার।

দক্ষিণ আমেরিকা ফুটবল কর্তৃপক্ষ (কনমেবল) মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, এই নিষেধাজ্ঞার ফলে মেসি ২০২২ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচে অংশ নিতে পারবেন না।

ব্রাজিলে অনুষ্ঠিত কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে চিলির গ্যারি মেডেলের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কির জেরে লাল কার্ড পান আর্জেন্টিনার অধিনায়ক লিওনেল মেসি। এ ঘটনার পর আয়োজক ব্রাজিল এবং ম্যাচ রেফারিদের ‘দুর্নীতিপরায়ণ’ হিসেবে অভিযুক্ত করেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। সেই সাথে ল্যাটিন আমেরিকার ফুটবল কর্তৃপক্ষের তীব্র সমালোচনা করেন তিনি।

উল্লেখ্য, করিন্থিয়াস এরেনায় চিলির বিপক্ষে তৃতীয় স্থান নির্ধারনী ম্যাচের ৩৭ মিনিটের মাথায় চিলির ডিফেন্ডার গ্যারি মেডেল মেসিকে বারবার ধাক্কা মারতে থাকেন। কিন্তু মেসি ছিলেন নির্লিপ্ত। তবু মেডেলকে ফাউল করতে উৎসাহিত করার অপরাধে এবং মাথা দিয়ে আঘাত করার ইঙ্গিত করায় মেডেলের সঙ্গে মেসিকেও লাল কার্ড দেখান রেফারি। ওই ম্যাচে আর্জেন্টিনা জিতলেও রাগে ক্ষোভে মেডেল নিতে পুরস্কার বিতরণী মঞ্চে উঠেননি মেসি। এরপর মেসি দাবি করেন, এই আসরে ব্রাজিলকে চ্যাম্পিয়ন করার জন্য সবকিছুই পরিকল্পনা করা আছে।

নেইমারের কাছে ডিফেন্ডার হিসেবে রামোস সেরা

অনলাইন ডেস্ক : যাদের মুখোমুখি হয়েছেন তাদের মধ্যে ডিফেন্ডার হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদের সের্হিও রামোসকে সেরা মনে করেন পিএসজির ফরোয়ার্ড নেইমার।
বার্সেলোনায় থাকার সময় বেশ কয়েকবার রামোসের বিপক্ষে খেলেছেন নেইমার। স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক মার্কা জানায়, এক অনুষ্ঠানে নিজের মুখোমুখি হওয়া সবচেয়ে কঠিন ডিফেন্ডার হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদের অধিনায়কের নাম বলেন ব্রাজিলিয়ান তারকা।

“যাদের বিপক্ষে আমি খেলেছি, তার মধ্যে সের্হিও রামোস সেরা।”

“সে দুর্দান্ত একজন সেন্টার-ব্যাক। আরও ভালো যে সে গোলও করতে পারে।”

গত বছর রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেওয়া তরুণ ব্রাজিলিয়ান উইঙ্গার ভিনিসিউস জুনিয়রকে নিয়ে নিজের আশাবাদের কথাও জানান নেইমার।

“সে খুবই তরুণ একজন খেলোয়াড়। সময়ের সঙ্গে সে অবিশ্বাস্য একজন খেলোয়াড় হয়ে উঠতে পারে।”

“সে অন্যতম সেরা খেলোয়াড় হয়ে উঠবে এবং ব্যালন ডি’অরের জন্য প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে। সে যেখানে থাকতে চায় সেখানেই থাকবে।”