Thursday , June 27 2019
Home / Home / ১০ বছরের অর্জনের উপর ভিত্তি করে এ বাজেট: অর্থমন্ত্রী

১০ বছরের অর্জনের উপর ভিত্তি করে এ বাজেট: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল

অনলাইন ডেস্ক : জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, সরকারের বিগত ১০ বছরের রূপকথাকেও হার মানানো অর্জনের উপর ভিত্তি করে এ বাজেট রচিত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় একাদশ জাতীয় সংসদের তৃতীয় অধিবেশন শুরুর পর স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর অনুমোদনক্রমে প্রস্তাবিত বাজেট উপস্থাপন শুরু করেন অর্থমন্ত্রী। এটি দেশের ৪৮তম, আওয়ামী লীগ সরকারের ২০তম এবং অর্থমন্ত্রী হিসেবে মুস্তফা কামালের প্রথম বাজেট।

বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী বলেন, আমাদের ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটটি দেশ পরিচালনায় আমাদের সরকারের বিগত ১০ বছরের অভাবনীয় অর্জন, যা রূপকথার গল্পগাঁথাকেও হার মানায়, তার উপর ভিত্তি করে রচিত হয়েছে। আমাদের সফল মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে তার সরকারের অর্জিত এ সকল সাফল্যের খতিয়ান অনেক বিশাল; এর থেকে মৌলিক কিছু তথ্য এই মহান সংসদের মাধ্যমে জাতির সামনে বিশেষ করে আমাদের তরুণ সমাজের সামনে আমি তুলে ধরতে চাই।

এবারের বাজেটের সম্ভাব্য আকার ধরা হয়েছে ৫ লাখ ২৩ হাজার ১৯০ কোটি টাকা। চলতি অর্থবছরের মূল বাজেটের চেয়ে আগামী বাজেট ১২ দশমিক ৬১ শতাংশ বড়। আগামী ৩০ জুন এই বাজেট পাস হবে।

গতবছর সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকার বাজেট পেশ করেছিলেন। তিনি টানা ১০ বার জাতীয় বাজেট পেশ করে স্বাধীন বাংলাদেশে রেকর্ড গড়েন।

আগামী অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা। আর ঘাটতি ধরা হয়েছে ১ লাখ ৪৫ হাজার ৩৮০ কোটি টাকা।

প্রস্তাবিত বাজেটে রাজস্ব আহরণের যে লক্ষ্যমাত্রা (৩ লাখ ৭৭ হাজার ৮১০ কোটি টাকা) ধরা হয়েছে তা দেশের মোট জিডিপির ১৩ দশমিক ১ শতাংশ। এর মধ্যে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) নিয়ন্ত্রিত কর ৩ লাখ ২৫ হাজার ৬০০ কোটি টাকা, এনবিআর-বহির্ভূত কর ১৪ হাজার ৫০০ কোটি, কর ব্যতিত প্রাপ্তি ৩৭ হাজার ৭১০ কোটি টাকা।

প্রস্তাবিত বাজেটের পরিচালন ব্যয় ধরা হচ্ছে ৩ লাখ ১০ হাজার ২৬২ কোটি টাকা। উন্নয়ন ব্যয় ধরা হচ্ছে ২ লাখ ১১ হাজার ৬৮৩ কোটি টাকা। এর মধ্যে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) ২ লাখ ২ হাজার ৭২১ কোটি টাকা।

ঘাটতি অর্থায়নের উৎস হিসেবে প্রস্তাবিত বাজেটে বৈদেশিক উৎস (অনুদানসহ) থেকে ৬৮ হাজার ১৬ কোটি টাকা এবং অভ্যন্তরীণ উৎস হতে ৭৭ হাজার ৩৬৩ কোটি টাকা সংগ্রহের কথা বলা হয়েছে।

প্রস্তাবিত বাজেটে জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ধরা হচ্ছে ৮ দশমিক ২ শতাংশ। এছাড়া নতুন বাজেটে মূল্যস্ফীতির চাপ ৫ দশমিক ৫ শতাংশে রাখার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

উপদেষ্টা সম্পাদক : মো: রেজাউল ওয়াদুদ উপদেষ্টা সম্পাদক : শহীদুল ইসলাম পাইলট উপদেষ্টা সম্পাদক : আহমেদ আবু জাফর উপদেষ্টা সম্পাদক : মুহাম্মদ আওলাদ হোসেন সম্পাদক : মো: আবু বক্কর তালুকদার ৩৭০/৩,কলেজ রোড,আমতলা,আশকোনা,ঢাক-১২৩০