Breaking News
loading...
Home / সমগ্র বাংলাদেশ / কোম্পানীগঞ্জে ধলাই নদীতে চাঁদাবাজি সংঘর্ষে আহত ব্যক্তির মৃত্যু

কোম্পানীগঞ্জে ধলাই নদীতে চাঁদাবাজি সংঘর্ষে আহত ব্যক্তির মৃত্যু

ফাইল ছবি,

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি : সিলেটের কোম্পানীগঞ্জের ধলাই নদীর টুকেরগাঁও সীমানায় চাঁদাবাজি নিয়ে এলাকার দুই গ্রæপের মধ্যে সংঘর্ষকালে গুরুতর আহত মনির উদ্দিন অবশেষে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেছেন। গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মৃত্যু বরণ করেন। নিহত মনির উদ্দিন (৩৫) উপজেলার বুড়িডহর গ্রামের আব্দুন নুরের ছেলে। গত ৮ সেপ্টেম্বর আহত হওয়ার পর দ্বিতীয় দফা চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেন মনির উদ্দিন। কিন্তু তৃতীয় দফায় ব্রেইন স্টোক করে ওসমানী হাসপাতালে ও ইবনে সিনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় সোমবার সকালে মৃত্যু বরণ করেন তিনি। তবে মানবিকতা ও সহানুভুতির হাত বাড়িয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন নির্মাণাধীন হাইটেক পার্কের বালু ইজাদারী প্রতিষ্ঠান ঢাকা ইপিসি কোম্পানী লিমিটেড। তারা আহত মনিরের পাশে থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সকল প্রকার চেষ্টা ও ব্যয়ভার গ্রহণ করেন। প্রায় দুই লক্ষ টাকা চিকিৎসার ব্যাপারে ব্যয় করেও সুস্থ করে তুলা সম্ভব হয়নি মনিরকে। শেষ পর্যন্ত মনির চলে যায় না ফেরার দেশে।

জানা যায়, কোম্পানীগঞ্জে নির্মাণাধীন হাইটেক পার্কের বালু দিয়ে আসছেন ঢাকা ইপিসি কোম্পানী লিমিটেড প্রতিষ্ঠান। স্থানীয় একটি চাঁদাবাজ চক্র তাতে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। তারা বিভিন্ন স্থানে নৌকা থামিয়ে অবৈধ ভাবে চাঁদা উত্তোলন করে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। স্থানীয় জামাল চেয়ারম্যান ও তার চাচাতো ভাই শাহীন, আফতাব আলী কালা মিয়া প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ ভাবে এই চাঁদাবাজীর সাথে জড়িত বলে অভিযোগ রয়েছে।

গত ৮ সেপ্টেম্বর কোম্পানীগঞ্জের ধলাই নদী হতে নৌকা যোগে বালু নিয়ে আসার পথে মনিরের নৌকা থামিয়ে চাঁদা দাবী করা হয়। এলাকা ভিত্তিক পূর্ব বিরোধ ও প্রভাব বিস্তারকে কেন্দ্র করে স্থানীয় ঢালারপাড় গ্রামের মহরম আলী হামলা চালায় মনির উদ্দিনের উপর। এতে গুরুতর আহত হতে হয় মনিরকে।

গুরুতর আহত অবস্থায় মনিরকে তার সহযোগীরা প্রথমে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে পরে গুরুতর অবস্থায় ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিছুটা সুস্থ্য হয়ে ৪ দিন পর চিকিৎসা শেষে বাড়িতে চলে যান মনির। কয়েকদিন ফের অসুস্থ হয়ে পড়লে পুনরায় ওসমানীতে ভর্তি করা হয় মনিরকে। সেখানে ১২দিন চিকিৎসা সেবা গ্রহণ করে সুস্থ হয়ে দ্বিতীয় বারের মতো বাড়িতে চলে যান মনির।

গত ৩ অক্টোবর মনির উদ্দিন গ্রামের বাড়িতে ব্রেইন স্ট্রোক করে প্রথমে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। ফের খবর পেয়ে সহানুভ’তির হাত বাড়ান নির্মাণাধীন হাইটেক পার্কের বালু ইজাদারী প্রতিষ্ঠান ঢাকা ইপিসি কোম্পানী লিমিটেড। তারা মনিরের উন্নত চিকিৎসার জন্য ইবনে সিনা হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করেন। সেখান পাঁচ দিন চিকিৎসা শেষে ডাক্তার ও মনিরের পরিবারের পরামর্শে গত রোববার রাতে ফের ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করেন ঢাকা ইপিসি কোম্পানীর কর্মকর্তাবৃন্দ। কিন্তু দীর্ঘ চিকিৎসা শেষে গতকাল সোমবার সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে মৃত্যু বরণ করেন মনির। মনিরের লাশ ময়না তদন্ত শেষে আজ মঙ্গলবার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে হাসপাতাল সুত্রে জানা গেছে।

কোম্পানীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যদিও মনিরের ঘটনার নেপথ্যে ভিন্ন কারন রয়েছে। তাতে কোম্পানীর কোন প্রকার দায়ভার নেই। তারপরও মানবিক দিক বিবেচনা করে সহযোগীতার হাত বাঁড়ান কোম্পানীর কর্মকর্তাবৃন্দ। তারা চিকিৎসার ব্যয়ভার ও পরিবারকে সহযোগীতারও আশ্বাস প্রদান করেন। নিহত মনির উদ্দিনের এক মেয়ে সন্তান রয়েছে।

ধলাই নদীতে চাঁদাবাজির অভিযোগ প্রসঙ্গে পশ্চিম ইসলামপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মোঃ জামাল উদ্দিন বলেন, আমি কোন চাঁদাবাজ নই। তাতে জড়িতও নয়। আনিত সকল অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবী করেন তিনি। তবে আফতাব আলী কালা মিয়ার সাথে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আলতাফ হোসেন বলেন, ধলাই নদীতে দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় মনির উদ্দিন নামের এক ব্যক্তি নিহত হওয়ার সংবাদ শুনেছি। তবে কোন অভিযোগ পাইনি।

Loading...
loading...

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন



Loading...

About sylhet24 express

Check Also

আসছেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রীও

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সেতুমন্ত্রী সিলেট আসছেন শনিবার

নিজস্ব প্রতিবেদক : সিলেটে আগামীকাল শনিবার পৃথক পৃথক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, সড়ক ও …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *