loading...
Home / সম্পাদকীয় / দাকোপে নদী ভাঙন আতঙ্ক প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে

দাকোপে নদী ভাঙন আতঙ্ক প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে

অতি বৃষ্টি এ বছর নাছোড়বান্দার মতো প্রান্তরে প্রান্তরে আছড়ে পড়ছে। আতঙ্কিত হয়ে পড়ছে বৃষ্টিকবলিত এলাকার মানুষ। কিছুদিন ধরে ঢাকার বৃষ্টির কাহিনি শেষ হতে না হতেই এবার অবিরাম বৃৃষ্টি ও স্থানীয় নদ-নদীতে পানির চাপ বেড়ে যাওয়ায় খুলনার দাকোপ উপজেলার ওয়াপদা বাঁধ, ঘরবাড়ি, কৃষিজমি, গাছপালা, সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা নদীগর্ভে বিলীন হওয়ার পথে। দাকোপে নদী ভাঙনে বিলীন হচ্ছে কামিনী-বাসিয়া বেড়িবাঁধ। গত দেড় মাসে পানি উন্নয়ন বোর্ডের (পাউবো) তিনটি পোল্ডার এলাকার প্রায় দুই কিলোমিটার বাঁধ বিলীন হয়েছে। ফলে আতঙ্কে আছে এ উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ। দুটি পোল্ডারে নদী শাসন ব্যবস্থা না রেখেই বিশ্ব ব্যাংক বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ করছে ধীরগতিতে। ফলে নদী ভাঙন প্রকট আকার ধারণ করেছে বলে অভিযোগ আছে।

দৈনিক আলোকিত সময়ের খবরে প্রকাশ, এলাকাবাসী ও জনপ্রতিনিধিদের থেকে জানা গেছে, ৩১, ৩২ ও ৩৩নং পোল্ডারে বাঁধ সংস্কার না হওয়ায় উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের বেড়িবাঁধ মারাত্মক ঝুঁকির মুখে রয়েছে। বেড়িবাঁধে ফাটল ও ভাঙনের বিষয়ে পাউবো কর্তৃপক্ষকে জানানো হলেও তারা কোনো পদক্ষেপই গ্রহণ করেননি। বিশ্বব্যাংক এ বাঁধের দায়িত্ব নেওয়ায় পাউবো এখন ওই বেড়িবাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ জায়গায় কোনো ধরনের কাজ করতে আগ্রহী নয়। বিশ্বব্যাংক দুটি পোল্ডারে নদী শাসন ব্যবস্থা না রেখে বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ ধীরগতিতে করছে। এর ফলে নদী ভাঙন প্রকট আকার ধারণ করেছে। বিশ্বব্যাংক বেড়িবাঁধের ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে কাজ না করে ভালো স্থানে কাজ শুরু করে ফলে ঝুঁকিপূর্ণ স্থানের বাঁধ আরও ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। এছাড়া নদীতে প্রবল জোয়ার সৃষ্টি হচ্ছে। ফলে পানির তোড়ে বাঁধের বিভিন্ন স্থানে নতুন করে ভাঙন দেখা দিয়েছে।

দেখা গেছে, গত দেড় মাসের ব্যবধানে বেড়িবাঁধের প্রায় দুই কিলোমিটার নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ায় এবং ভয়াবহ এ নদী ভাঙন রোধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গৃহীত না হওয়ায় এলাকার মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পড়েছে। তাই ঝুঁকিপূর্ণ বেড়িবাঁধ দ্রুত সংস্কার ও বিকল্প নির্মাণের জন্য এবং নদী ভাঙন কবলিত স্থানগুলোতে প্রাথমিক কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন। অধিক বিলম্ব জনগণের জীবনে সীমাহীন দুর্ভোগ ডেকে আনবে। তার আগেই সরকারের পক্ষ থেকে ব্যবস্থা নেয়া হোক।

Loading...
loading...

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন



Loading...

About sylhet24 express

Check Also

S24e

শরণার্থী ও বাংলাদেশের সামর্থ্য বিশ নেতৃবৃন্দকে ভাবতে হবে

ইতিপূর্বে মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের কাছে কাউকে যেতে না দেওয়ার সরকারি সিদ্ধান্তকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে বর্ণনা করেছে জাতিসংঘ। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *