Breaking News
loading...
Home / জাতীয় / ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে নৌপথে বিশেষ ব্যবস্থা

ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে নৌপথে বিশেষ ব্যবস্থা

ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে নৌপথে বিশেষ ব্যবস্থা

ঈদের আগের ৩ দিন ও পরের ৩ দিন পশুবাহী ট্রাক ব্যতীত ট্রাক ফেরিতে পারাপার বন্ধ

রতন বালো : ঈদযাত্রা নির্বিঘ্ন করতে নৌপথের বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। রাজধানীর সদরঘাটে শৃঙ্খলা রক্ষা ও যাত্রীদের নিরাপত্তা বিধানের জন্য ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি আনসারসহ কমিউনিটি পুলিশের ব্যবস্থা জোরদার করার পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

এ ছাড়া সদরঘাট থেকে বাহাদুরশাহ পার্ক পর্যন্ত রাস্তা হকারমুক্ত রাখা হবে। বিশেষ করে পবিত্র ঈদুল আজহার আগে তিনদিন ও পরের তিনদিন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও কুরবানির পশুবাহী ব্যতীত অন্যান্য কাভার্ড ভ্যান ফেরিতে পারাপার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়।

এ ছাড়া ঈদে স্বাভাবিক লঞ্চ চলাচল নিশ্চিত করতে নৌপথে সব ধরনের জাল পাতা বন্ধ এবং নৌযানে পর্যাপ্ত বয়া বাতি ও মার্কিংয়ের ব্যবস্থা করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

গতকাল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষর (বিআইডব্লিউটি) ভবনে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে নৌযানসমূহ সুষ্ঠুভাবে চলাচল, যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ সংক্রান্ত এক সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান।

সভা থেকে জানানো হয়েছে, সদরঘাটে পর্যাপ্তসংখ্যক স্টিলের ডাস্টবিন স্থাপন, জনগণকে ডাস্টবিন ব্যতীত নদীতে কিংবা পন্টুন, গ্যাংওয়েতে ময়লা আবর্জনা ফেলতে নিরুৎসাহিত করা এবং স্বেচ্ছাসেবক নিয়োজিত করে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার ব্যবস্থাও নিশ্চিত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সভা থেকে আরও জানানো হয়েছে, ঘাট ইজারাদার কর্তৃক যাত্রী হয়রানি বন্ধে সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ ও বিআইডব্লিউটিএর কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণ এবং লঞ্চে যাত্রী ওঠার সময় থেকে লঞ্চের চালক, মাস্টার ও অন্যান্য কর্মচারীদের অবস্থান নিশ্চিত করতে হবে।

এ ছাড়ও লঞ্চের অনুমোদিত ভাড়ার চেয়ে বেশি ভাড়া আদায়ে এবং নদীর মাঝপথে নৌকাযোগে যাত্রী উঠালে সংশ্লিষ্ট লঞ্চ মালিকদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দৌলতদিয়া ঘাটে পার্কিং বে (ইধু) ও বাইপাস জরুরি ভিত্তিতে চালু করা হবে। স্পিডবোটে চলাচলের সময় যাত্রীদের লাইফ জ্যাকেট পরিধান নিশ্চিতকরতে হবে।
জানা গেছে, রাতের বেলায় সব প্রকার মালবাহী জাহাজ, বালুবাহী বাল্কহেড চলাচল বন্ধ রাখতে হবে। নৌপথে ডাকাতি, চাঁদাবাজি, শ্রমিক, যাত্রীদের হয়রানি ও ভীতিমূলক অবস্থা প্রতিরোধ করার জন্য রাতে পুলিশের টহলের ব্যবস্থ জোড়দার করা হবে। পুলিশ নদীতে এলোমেলোভাবে ট্যাংকার, লঞ্চ, কোষ্টার বার্জসহ সব যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণে রাখবে। কোনো ক্রমেই লঞ্চের যাত্রী ও মালামাল ওভারলোড করা যাবে না। প্রত্যেক লঞ্চের সিড়িতে দুই পার্শ্বে প্রশস্ত রেলিং এর ব্যবস্থা করতে হবে।
এ ছাড়া সদরঘাট, নদীর মাঝপথ থেকে নৌকা দিয়ে যাত্রী লঞ্চে-নৌযানে উঠতে না পারে তার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এ জন্য বাংলাদেশ কোস্টগার্ডকে নিয়োজিত করতে হবে। কেবিনের যাত্রীদের ছবি-মোবাইল নম্বর-জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর সংরক্ষণ করতে হবে।

সভায় থেকে আরও জানানো হয়েছে, ঈদের পূর্বে তিনদিন ও ঈদের পরে তিনদিন নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ব্যতীত সাধারণ ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান ফেরি পারাপার বন্ধ রাখা হবে। লঞ্চের স্বাভাবিক চলাচল নিশ্চিত করতে নৌপথে সব মাছ ধরার জাল পাতা বন্ধ রাখতে হবে।

মাওয়া-চরজানাজাত এবং পাটুরিয়া-দৌলতদিয়াসহ অন্যান্য সব নৌ-চ্যানেলে প্রয়োজনীয় ড্রাফট নিশ্চিতকরণ। ফেরিঘাট ব্যবস্থাপনা কমিটি সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা নিয়ে ঘাটে নির্বিঘ্ন সিরিয়াল প্রদানের ব্যবস্থা করবে।

জানা গেছে, ভোলা-ল²ীপুর রুটে নতুন দুটি সী-ট্রাক চালুকরণ,পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ও মাওয়া-কাওড়াকান্দি রুটে ৪টি ফেরিঘাটে ৪টি রেকার রাখার ব্যবস্থাকরণ, চাঁদপুর-বরিশাল রুটে লঞ্চ মালিক সমিতির ৬ টি লঞ্চ ও বিআইডব্লিউটিসির ২টি স্টিমার রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে অদ্যকার সভায়।

ফেরিঘাট ও লঞ্চঘাটসমূহে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় ও অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাই নিয়ন্ত্রণের জন্য মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে। এছাড়ও গার্মেন্ট ও নিটওয়্যর সেক্টরে ঈদের ছুটি পুনবিন্যাস করার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়, এফবিসিসিআই, বিজেএমইএ, বিকেএমইএ এর সঙ্গে সভা করা। সংশ্লিষ্ট জেলার নৌযান, নৌপথ, পরিবহনের সঙ্গে সম্পৃক্ত সবার সমন্বয়ে স্থানীয়ভাবে সচেতনতামূলক সভা করা।

দৌলতদিয়া ট্রাক টার্মিনালের পানি অবিলম্বে নিষ্কাশনের ব্যবস্থা নিতে হবে বলে ঘাট সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। এ ছাড়া ঈদ পরবর্তীতে মাটি ভরাট করে উঁচু করার ব্যবস্থা নিতে হবে। সব ফেরি ঘাটে ফেরির ডাস্টবিন ডিসর্চাজ করার ব্যবস্থা করতে হবে। শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌ রুটে নৌ দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য পদ্মা নদীতে ঘূর্ণাবর্ত এলাকা মার্কিং করতে হবে। দুর্ঘটনায় ডুবে যাওয়া নৌ যান-লঞ্চ-জাহাজের অবস্থান যাতে সনাক্ত করা যায় সেজন্য প্রত্যেক নৌ যান-লঞ্চ-জাহাজের ছাদের সঙ্গে ২০০-৩০০ ফুট শক্ত রশি দিয়ে একটি বড় প্লাস্টিক কন্টেননার-বয়া বেঁধে রাখতে হবে।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব অশোক মাধব রায়, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর এম মোজাম্মেল হক, বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান প্রকৌশলী ড. জ্ঞান রঞ্জন শীল, নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কমডোর সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, কোস্ট গার্ড-এর মহাপরিচালক, ডিআইজি নৌ-পুলিশ,অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থার সভাপতি মাহবুবউদ্দিন আহম্মদ বীর বিক্রম, লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল­াহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া গতকাল সদরঘাট নৌটার্মিনাল সূত্রে জানা গেছে, পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে ঢাকা-বরিশাল রুটে গতকাল সকাল থেকে লঞ্চের অগ্রিম টিকিটের জন্য আবেদন (স্লিপ) জমা নেওয়া হচ্ছে।

জানা গেছে, গতকাল প্রথম দিনে কার্যক্রমটি শুরু করেছে ক্রিসেন্ট শিপিং লাইন্সের সুরভী লঞ্চ কর্তৃপক্ষ। বাকি কোম্পানিগুলোর মধ্যে সুন্দরবন নেভিগেশন এ প্রথায় স্লিপ জমা নেবে। তবে তারা এখনো তারিখ নির্ধারণ করতে পারেনি।

সুরভী লঞ্চ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, গতকাল থেকে তারা কেবিনের টিকিটের জন্য আবেদন (স্লিপ) জমা নিচ্ছে। স্লিপ জমা নেওয়া হবে ১১ আগস্ট বিকেল ৫টা পর্যন্ত।
সুরভী ও সুন্দরবন ব্যতীত অন্য বেশির ভাগ লঞ্চ কোম্পানি স্লিপ ছাড়া আগে এলে আগে পাবেন ভিত্তিতে ঈদুল আজহায় ঘরমুখো মানুষের জন্য লঞ্চের টিকিট বিক্রি করবে।

Loading...
loading...

ভিডিওটি দেখতে নিচে ক্লিক করুন



Loading...

About admin

Check Also

শুধু আইন দিয়ে নয়, নিজের বিবেককে জাগ্রত রেখে কাজ করতে হবে : ডেপুটি স্পিকার

শুধু আইন দিয়ে নয়, নিজের বিবেককে জাগ্রত রেখে কাজ করতে হবে : ডেপুটি স্পিকার

সংসদ প্রতিবেদক : জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, শুধু আইন দিয়ে নয়, …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *