loading...
Home / বিনোদন / তদন্ত কর্মকর্তাদের নীলা চৌধুরী রুবিকে দেশে ফিরিয়ে জবানবন্দি নিন

তদন্ত কর্মকর্তাদের নীলা চৌধুরী রুবিকে দেশে ফিরিয়ে জবানবন্দি নিন

সালমান শাহ

মাইনুল হক ভূঁইয়া : দীর্ঘ ২১ বছর পর ঢাকাই চলচ্চিত্রের রাজকুমার সালমান শাহর মৃত্যুর রহস্য উদঘাটিত হতে চলেছে। সোমবার আমেরিকা প্রবাসী বাংলাদেশি রাবেয়া সুলতানা রুবি এক ভিডিও বার্তয় দাবি করেনছেন জনপ্রিয় এ তারকা আত্নহত্যা করেননি। তাকে হত্যা করা হয়েছে। রুবির এ বক্তব্যের পর ছোট ছেলের সঙ্গে যুক্তরাজ্যে বসবাস করা সালমানের মা নীলা চৌধুরী বলেছেন, সালমান শাহর খুনের রহস্য উদঘাটনে রাবেয়া সুলতানা রুবিকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরিয়ে এনে তার জবানবন্দি নেওয়ার হোক। আলোচিত এ তারকা হত্যা মামলার ৭ নম্বর আসামি রুবে বিবকেরে তারনায় সত্য প্রকাশ করতে আগ্রহী হয়েছেন। তাকে নিরাপত্তা দিয়ে ঢাকায় ফিরিয়ে আনার দাবি জানিয়ে নীলা চৌধুরী ভিডিও বার্তায় বলেন, তাকেও হত্যার চেষ্টা চলছে। তার (রুবি) ছোট ভাইকেও হত্যা করা হয়েছে।

‘২১ বছর পর জট খুলছে। খুন হয়েছেন সালমান শাহ’ শিরোনামে গতকাল আলোকিত সময়ে একটি বিশেষ সংবাদ প্রকাশিত হয়। এতে আমেরিকা প্রবাসী রাবেয়া সুলতানা রুবির ভিডিও বার্তার বিষয়ে একটি বিশেষ সংবাদ প্রকাশিত হয়। ভিডিও বার্তায় রুবি দাবি করেন- ঢাকাই চলচ্চিত্রের রাজকুমার সালমান শাহ আÍহত্যা করেননি। তাকে হত্যা করা হয়েছে।
আত্নস্বীকৃত রাবেয়া সুলতানা রুবি ধানন্ডির ২৭নং সড়কের সাংহাই চাইনিজ রেস্তোরাঁর মালিক চ্যাং লিং চ্যাং (বাংলাদেশে জন চ্যাং নামে পরিচিত) এর স্ত্রী। তিনি সোমবার ভিডিও বার্তায় সালমান শাহর ঘাতকদের নাম প্রকাশ করেন। রুবির এ ভিডিও বার্তা নিয়ে বাংলাদেশে তোলপাড় শুরু হয়েছে। নড়েচড়ে উঠেছেন তদন্তের দায়িত্বে থাকা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনস (পিবিআই)। তদন্ত কর্মকর্তারা ইতোমধ্যে রুবির সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে তদন্ত সূত্রে জানা গেছে।

সালমান শাহর মা নীলা চৌধুরী গতকাল বলেন, ‘এই মহিলাই (রুবি) আমাকে চরিত্রহীন প্রমাণ করার চেষ্টা করেছেন, সামিরার বাবাও চেষ্টা করেছেন। আামকে খারাপ প্রমাণ করে কি আমার ছেলের খুনকে বদলায়ে ফেলতে পারবে তারা?’

সালমান শাহর মায়ের অভিযোগ, আইনজীবী থেকে শুরু করে সবাই তাকে এতদিন ‘ঘুরিয়েছে’। ‘পয়সা খেয়ে’ আত্মহত্যা বলে প্রমাণের চেষ্টা করেছে। তারপর রুবির এ ‘স্বীকারোক্তি’ এল, যাকে অপরাধীদের স্বাভাবিক নিয়তি এবং সৃষ্টিকর্তার কাছে ‘প্রার্থনার ফসল’ হিসেবে বর্ণনা করছেন নীলা।

রুবির বক্তব্য যে সামিরার বাবা প্রত্যাখ্যান করেছেন, সে বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে নীলা বলেন, আসামিরা নিজেদের বাঁচাতে অনেক কিছুই বলে।
‘কোনো পাগলও তো এই স্টেটমেন্টটা (রুবির দেওয়া বক্তব্য) ছেড়ে দেবে না। সামিরার বাবা ছাড়া আর কেউ বলবে না যে এটা পাগলের বক্তব্য।’ রুবির বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে নীলা বলেন, ‘তার জীবন এখন হুমকির মুখে। যে আমাকে গালি দিছে সে আমার কাছে এখন শেল্টার চাচ্ছে।’ নীলার ধারণা, তার ছেলের হত্যাকারীরা এতদিন রুবির মুখ বন্ধ রাখতে পারলেও এখন ‘একটা কিছু’ হয়েছে, যে কারণে তিনি সব বলে দিতে চাইছেন।

হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার বিষয়ে অভিযুক্ত সামিরার বাবা শফিকুল হক হীরার পরিবারের ‘কোনো একটি ঘটনার’ কারণেই সালমান শাহকে ‘হত্যা করা হয়েছিল’ বলে তার মায়ের সন্দেহ।

বর্তমানে ছোট ছেলের সঙ্গে ম্যানচেস্টারের কাছে রচডেলে বসবাসরত নীলা চৌধুরী আরও বলেন, নিরাপত্তাহীনতার কারণে তিনি দেশে ফিরতে পারছেন না। তবে দেশে মামলা পরিচালানার জন্য তার লোক আছে।

সালমান শাহ ক্যারিয়ার শীর্ষে থাকা অবস্থায় ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর রহস্যজনক মৃত্যু হয়। মৃত অবস্থায় তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ধারণা করা হয় তিনি আত্মহত্যা করেছেন। কিন্তু সালমান শাহর পরিবারের এই ২১ বছর ধরে দাবি করে আসছিলেন, তাদের সন্তানকে হত্যা করা হয়েছে। এই মৃত্যুকে কেন্দ্র করে মামলাও হয়েছে। সালমান ভক্তরাও তাদের প্রিয় নায়ককে খুন করা হয়েছে দাবি করে আন্দোলন করে খুনিদের শনাক্ত করে তাদের শাস্তি দেওয়ার দাবি জানিয়ে আসছিলেন। কিন্তু এর কোনো কিনারা পাওয়া যাচ্ছিল না। এরই মাঝে বোমা ফাটালেন রাবেয়া সুলতানা রুবি।

আত্নস্বীকৃত রাবেয়া সুলতানা রুবি তার ভিডিও বার্তায় সালমান শাহর খুনিদের নাম উলে­খ করে বলেন, ‘সালমান শাহ ইমন আত্মহত্যা করে নাই। খুন হইছে। আমার ছোট ভাই রুমিরে দিয়া খুন করানো হইছে। রুমিরেও খুন করা হইছে। আমি জানি না রুমির কবর কোথায় আছে। রুমির লাশ যদি কবর থেকে তুলে ঠিকমতো আবার পোস্টমর্টেম করে, তাহলে দেখা যাবে যে ওরা গলা টিপে মাইরা ফেলছে।’ রুবি আরও কয়েকজন এ খুনের সঙ্গে জড়িত আছেন দাবি করে বলেন, ‘এর মধ্যে আমার খালু মুন্তাজ হাসান আছে। ধানমন্ডি ২৭ নম্বর রোডের সাংহাই চাইনিজ রেস্টুরেন্টের মালিক আমার হাজব্যান্ড চ্যাং লিং চ্যাং (জন চ্যাং নামে বাংলাদেশে পরিচিত) এ হত্যার সঙ্গে জড়িত।’

এ দিকে সালমান শাহকে হত্যার অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে আসা সামিরার বাবা বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক শফিকুল হক হীরা এতদিন পর রুবির এ ধরনের বক্তব্যের উদ্দেশ্য নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, সবই তার এবং তার পরিবারের সুনাম ক্ষুণ্নের জন্য করা হচ্ছে।

loading...

About admin

Check Also

সোনাবন্ধু ছবিতে ডি এ তায়েব ও পরিমনি

ঈদে মুক্তি পাচ্ছে তিনটি সিনেমা, দুটিতেই শাকিব-বুবলী

সিলেট টুয়েন্টিফোর এক্সপ্রেস ডেস্ক : গেল ঈদে মুক্তিপ্রাপ্ত তিন ছবির মধ্যে নবাব ও রাজনীতি দেশের একাধিক প্রেক্ষাগৃহে এখনো চলছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *