loading...
Home / অর্থনীতি / ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রিজ এসি তৈরি করছে ওয়ালটন

ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রিজ এসি তৈরি করছে ওয়ালটন

ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রিজ এসি তৈরি করছে ওয়ালটন

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : আধুনিক বিশ্বে ইলেকট্রনিক্স এ্যাপ্লায়েন্সেসে ব্যবহৃত হচ্ছে লেটেস্ট প্রযুক্তি ‘ইনভার্টার’। বিশেষ করে ফ্রিজ এবং এসিতে যুগান্তকারী ইনভার্টার কম্প্রেসারের সংযুক্তি এসব পণ্যকে করেছে ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী। বেশকিছুদিন ধরেই বাংলাদেশে ওয়ালটন ফ্রিজ এবং এসিতে ব্যবহৃত হচ্ছে ইনটিলিজে›ক্ষ ইনভার্টার। সংশ্লিষ্টদের মতে, এই প্রযুক্তি ব্যবহারে শুধুমাত্র ফ্রিজেই বছরে সাশ্রয় হবে ৩ হাজার ৬০০ কোটি টাকা। যা দিয়ে বাড়তি বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব। সম্ভব বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ড বাস্তবায়ন।

জানা গেছে, গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজে ফ্রিজ গবেষণা ও উন্নয়ন বিভাগের প্রকৌশলীরা তৈরি করছেন ই›েক্ষলিজে›ক্ষ ইনভার্টার প্রযুক্তির কম্প্রেসার সম্বলিত ১৮০০০ বিটিইউর (ব্রিটিশ থারমাল ইউনিট) এসি এবং ১৬টি বৈচিত্র্যময় ডিজাইন ও কালারের নন-ফ্রস্ট রেফ্রিজারেটর। সেই সঙ্গে ফ্রিজের কম্প্রেসারে ব্যবহৃত হচ্ছে বিশ্ব স্বীকৃত পরিবেশবান্ধব সিএফসি এবং এইচএফসি গ্যাসমুক্ত জ৬০০ধ রেফ্রিজারে›ক্ষ। যা পরিবেশ সুরক্ষার পাশাপাশি ফ্রিজের বিদ্যুৎ খরচ সাশ্রয় করে প্রায় ১০ শতাংশ পর্যন্ত। সবমিলিয়ে ওয়ালটন ফ্রিজ এবং এসি বিদ্যুত সাশ্রয় করে ৫০ শতাংশ। ওয়ালটন ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রিজ ও এসি বাজারে আসার অল্প দিনের মধ্যেই গ্রাহকপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে এসেছে। এছাড়া ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী হিসেবে বিএসটিআই এর ফাইভ স্টার রেটিং অর্জন করেছে ওয়ালটন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় ২৫ লাখ ফ্রিজ বিক্রি হয়। তাদের ধারণা, বর্তমানে দেশে দুই কোটিরও বেশি ফ্রিজ ব্যবহৃত হচ্ছে। সাধারণত একটি ফ্রিজের মাসিক বিদ্যুৎ বিল গড়ে প্রায় ৩০০ টাকা। সেই হিসাবে পুরো বছরে আসে ৩৬০০ টাকা। এসব ফ্রিজ যদি ইনভার্টার প্রযুক্তির হতো তাহলে বিদ্যুৎ সাশ্রয় হতো প্রায় ৫০ শতাংশ পর্যন্ত। এতে করে পুরো বছরে একটি ফ্রিজে বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয় ১৮০০ টাকা। আর দুই কোটি ফ্রিজে বাৎসরিক বিদ্যুৎ খরচ সাশ্রয় হবে ৩,৬০০ কোটি টাকা। সেক্ষেত্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন ও সরবরাহের মধ্যে বিদ্যমান ঘাটতিও হ্রাস পাবে।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় বুয়েটের অধ্যাপক ড. আব্দুল হাসিব চৌধুরী বলেন, ইনভার্টার হচ্ছে বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তি। ইনভার্টার যে কোনো মোটরের কার্যক্ষমতা বাড়ায়। এনার্জি সাশ্রয় করে। তাই বড় বড় শিল্প কারখানার মেশিনারিজে ব্যবহার করা হচ্ছে ইনভার্টার প্রযুক্তির মোটর। এছাড়া ফ্রিজ ও এসির কম্প্রেসারে ব্যাপকভাবে ইনভার্টার প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেন, বিদ্যুতের চাহিদা পূরণে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। তাই, উৎপাদনক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের বিষয়ে সরকারও খুব সচেতন। ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইনভার্টার প্রযুুক্তির ফ্রিজ উৎপাদন ও বাজারজাত নিঃসন্দেহে দেশের অর্থনীতির জন্য একটি শুভ উদ্যোগ। এমন মহৎ উদ্যোগের জন্য ওয়ালটনকে সাধুবাদ জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ইনভার্টার প্রযুক্তির ফ্রিজ ব্যবহারের ফলে বছরে যদি ৩৬০০ কোটি টাকার বিদ্যুৎ সাশ্রয় হয়, এই বিশাল অর্থ দিয়ে দেশের অবকাঠামো উন্নয়নসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড সম্ভব হবে। বিদ্যুৎ খাতের পাশাপাশি দেশের অর্থনীতিতে আরেকটি বিপ্লব ঘটবে বলে মনে করেন তিনি। বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী পণ্য উৎপাদনে ওয়ালটনের এমন মহৎ উদ্যোগে সরকারের পক্ষ থেকে সব ধরনের সহযোগিতা থাকবে বলেও জানান নসরুল হামিদ।

উলে­খ্য, বাজারে বর্তমানে ব্যাপক বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির ৪৩০ লিটার, ৪৬৭, ৫১২, ৫২০, ৫২৬, ৫৫৫, ৫৭৫ ও ৫৮৫ লিটারের ১৬টি মডেলের নন-ফ্রস্ট ফ্রিজ রয়েছে ওয়ালটনের।

loading...

About admin

Check Also

বাংলাদেশ ব্যাংক

ঘাটতি মেটাতে দিনে ২ হাজার কোটি টাকা করে ঋণ নিচ্ছে সরকার

মুহাম্মাদ আখতারুজ্জামান : ঘাটতি মেটাতে দিনে ২ হাজার কোটি টাকা করে ঋণ নিচ্ছে সরকার। দীর্ঘদিন পর …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *