Breaking News
loading...
Home / Uncategorized / অস্তিত্ব হারাতে বসেছে মৌলভীবাজারের দৃষ্টিনন্দন বেরী লেক

অস্তিত্ব হারাতে বসেছে মৌলভীবাজারের দৃষ্টিনন্দন বেরী লেক

অস্তিত্ব হারাতে বসেছে মৌলভীবাজারের দৃষ্টিনন্দন বেরী লেক
অস্তিত্ব হারাতে বসেছে মৌলভীবাজারের দৃষ্টিনন্দন বেরী লেক

অনলাইন ডেস্ক : দখলদারদের করাল ঘ্রাসে অস্তিত্ব হারাতে বসেছে মৌলভীবাজারের দৃষ্টিনন্দন বেরী লেক। লেকের চারপাশে মাটি ভরাট করে অবৈধভাবে গড়ে উঠছে ঘরবাড়িসহ বিভিন্ন স্থাপনা। প্রতিনিয়তই বাঁশ-কাঠ দিয়ে গড় নির্মাণ করে চলছে মাটি ভরাটের কাজ। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বারবার বাধা দিলেও পরক্ষণেই শুরু হয়ে যায় ভরাট বাণিজ্য। এসব দখলদারদের বিরুদ্ধে এখই ব্যবস্থা না নিলে দ্রুতই লেকের মূল অংশটিও হারিয়ে যেতে পারে।
একসময় মৌলভীবাজার শহরের এ বেরী লেকে সাঁতার কেটেছেন অনেকে, বিকেলে লেকের পাড়ে চলতো খেলাধূলা। আর এখন লেকে ময়লা-আবর্জনা ফেলে ও মাটি ভরাট করে দখলদাররা ঘ্রাস করে নিয়েছে লেকের প্রায় অর্ধেক অংশ। লেকের চারপাশে নামে-বেনামে গড়ে উঠেছে পাকা দালানকোঠা সহ বিভিন্ন আবাসিক-অনাবাসিক স্থাপনা। ইতিমধ্যেই লেকের পাশে মাটি ভরাট করে ছোট ছোট পাকা ঘর নির্মাণ করে ভাড়া তুলে নিচ্ছে একটি প্রভাবশালী মহল। দখল-ভরাট ঠেকাতে মাঝেমধ্যে প্রশাসনকে এগিয়ে আসতে দেখা গেলেও পরবর্তীতে তেমন কোন ব্যবস্থা নিতে দেখা যায়নি। এখনও তাজা রয়েছে লেকের একপাশে বাঁশ দিয়ে গড় নির্মাণ করে মাটি ভরাটের চিহ্ন।
খরস্রোতা মনু নদী গতিপথ পাল্টে শহরের উত্তর দিকে প্রবাহিত হওয়ায় এ লেকের সৃষ্টি হয়। নামকরণ করা হয় বেরী লেক। লেকের পশ্চিমদিকতো আগেই ভরাট হয়ে গেছে। তবে বর্তমান চিত্র দেখে মনে হচ্ছে, মূল যে অংশটুকু আছে তাও কিছুদিনের মধ্যেই ভরাট হয়ে যাবে।
মৌলভীবাজার পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান আলোকিত সময়কে জানান, লেকটি জেলা প্রশাসনের খতিয়ানভুক্ত, তবে জেলা প্রশাসন চাইলে দখল উচ্ছেদে সবধরণের সহযোগিতা করতে প্রস্তুত আমরা মৌলভীবাজার পৌরসভা কর্তৃপক্ষ।
জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম বলেন অবৈধ দখলদারদের তালিকা তৈরি কাজ চলছে । তালিকা তৈরির কাজ চ‚ড়ান্ত হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। স¤প্রতি ভরাটের কথা স্বীকার করে এ ব্যাপারে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে ।
জলাধার আইনে মাটি ভরাট নিষিদ্ধ থাকলেও কিভাবে একটি জেলা শহরে এমন কার্যক্রম চলছে তা দেখে অনেকটাই হতবাক স্থানীয়রা। জেলা প্রশাসন অতীতেও দখল উচ্ছেদে এমন আশ্বাসের বাণী দিয়েছেন শহরবাসীকে। আদৌ কি কোন ব্যবস্থা নেয়া হবে এসব দখলদারদের বিরুদ্ধে, এমন প্রশ্নই ঘুরপাক খাচ্ছে স্থানীয়দের মনে।

loading...

About admin

Check Also

ছাগল, ভেড়া ও মহিষ পালনেও ঋণ দেবে সরকার

ছাগল, ভেড়া ও মহিষ পালনেও ঋণ দেবে সরকার

  অনলাইন ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার এখন থেকে ছাগল, ভেড়া এবং মহিষ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *